ঢাকা ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

রয়্যালটি ছাড়াই করোনার ওষুধ তৈরি করতে দেবে ফাইজার

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৬ নভেম্বর ২০২১ ২১:১৯:৪৭ আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০২১ ২১:২৮:২৮
রয়্যালটি ছাড়াই করোনার ওষুধ তৈরি করতে দেবে ফাইজার

করোনা চিকিৎসায় আরো একটি মুখে খাওয়ার ওষুধ আসছে। যেটি বাজারে আনছে ফাইজার। এই খবর নতুন নয়। নতুন খবর হলো, ওষুধটি সহজলভ্য করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। 

কোনও রকম ‘রয়্যালটি’ ছাড়াই অন্যান্য সংস্থাগুলিকে নিজেদের করোনা ওষুধ তৈরি করতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমেরিকান ড্রাগ জায়ান্ট- ফাইজার। 

প্রতিষ্ঠানটি এই সিদ্ধান্তের ফলে নিম্ন ও মধ্য আয়ের প্রায় ৯৫টি দেশ উপকৃত হবে। বিশ্বের মোট জনসংখ্যার কমপক্ষে ৫৩ শতাংশ মানুষ সুবিধা পাবেন এই সিদ্ধান্তের কারণে। 

ফাইজ়ারের তৈরি করোনার ওষুধ এখনও পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে। ট্রায়াল চলছে, পাওয়া গেছে আশা জাগানো ফল। এতে আগেই শেষ হতে চলেছে ট্রায়াল। 

ট্রায়াল সফল হলে এবং তা নিয়ামক সংস্থা এএফডির অনুমোদন পেলে, ওষুধটি যাতে গরিব দেশগুলোতে আরও সস্তায় পাওয়া যায় তার ব্যবস্থা করবে ফাইজ়ার। 

ফাইজ়ারের তৈরি ওষুধটির নাম প্যাক্সলোভিড। এটি অন্যান্য ওষুধ প্রস্ততকারক সংস্থাগুলোও যাতে তৈরি করতে পারে তার জন্য লাইসেন্স দিতে রাজি হয়েছে এই প্রতিষ্ঠান।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশকে করোনার ওষুধ উৎপাদনের অনুমতি ফাইজারের

এজন্য তাদেরকে কোন ধরনের রয়্যালটি দিতে হবে না। এতে করে কমে যাবে ওষুধটির উৎপাদন খরচ। গরিব দেশের মানুষরা সহজেই পাবেন ওষুধটি। 

ফাইজারের দাবি, করোনা রোগীদের মৃত্যু বা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা ৯০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারে তাদের তৈরি ওষুধ।

৭৭৫ জন রোগীর ওপর প্রাথমিকভাবে ওষুধটির পরীক্ষা করেছে ফাইজ়ার। দেখা গেছে মৃত্যু হয়নি কারও। এক শতাংশের কম রোগীর ক্ষেত্রে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয়েছে।

জানা গেছে, পাক্সলোভিড নামের ওষুধটি দিনে দু’বার তিনটি করে খাওয়াতে হবে রোগীকে। এই ওষুধ খেলে কী পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে, সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি ফাইজার।


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন