ঢাকা ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বিশ্বের দ্রুততম বিদ্যুৎচালিত বিমান 'স্পিরিট অব ইনোভেশন'

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২২ নভেম্বর ২০২১ ১৩:০৩:৪৫ আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০২১ ১৩:১১:৪১
বিশ্বের দ্রুততম বিদ্যুৎচালিত বিমান 'স্পিরিট অব ইনোভেশন'

বিশ্বের দ্রুততম সম্পূর্ণ বিদ্যুৎচালিত বিমান তৈরির দাবি করেছে ব্রিটিশ অটোমোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা রোলস-রয়েস। জ্বালানি নির্ভর আকাশযান থেকে বেরিয়ে আসতে ও পরিবেশের ভারসাম্যের কথা মাথায় রেখে 'স্পিরিট অব ইনোভেশন' নামের এ বিমান তৈরি করা হয়েছে। 

এবার কী তাহলে মহাকাশ ভ্রমণে নতুন দিগন্ত উন্মোচন হতে যাচ্ছে। অন্তত রোলস-রয়েসের সম্পূর্ণ বিদ্যুৎচালিত বিমানের এই গতি সেটারই জানান দিচ্ছে। 

উইল্টশায়ারের বসকম্ব ডাউনে পরীক্ষামূলক এই ফ্লাইটগুলি পরিচালনা করে রোলস-রয়েস। এখানেই ফ্লাইট অপারেশনের পরিচালক এবং পাইলট ফিল ও'ডেল সর্বোচ্চ গতি তোলেন।


রোলস রয়েসের এয়ারস্পেস সদর দপ্তর জানায়, পরীক্ষামূলক উড্ডয়নে বিমানটির গতি ঘণ্টায় ৬২৩ কিলোমিটার পর্যন্ত ওঠে। এটি তিনটি ভিন্ন দূরত্ব অতিক্রম করে নতুন বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে বলে দাবি করে সংস্থাটি। এর সত্যতা যাচাইয়ের জন্য পরিসংখ্যান বিশ্ব এয়ার স্পোর্টস ফেডারেশনে পাঠানো হয়েছে।

স্পিরিট অব ইনোভেশন ২০১৭ সালে সিমেন্স ই-এয়ারক্র্যাফ্ট চালিত এক্সট্রা ৩৩০ এলই অ্যারোব্যাটিক বিমানের করা রেকর্ডের তুলনায় ঘণ্টায় ১৩২ মাইল বেশি দ্রুততম ছিল। 

এটি নয় হাজার ৮৪২ ফুট উপরে উঠতে দ্রুততম সময় নেওয়ার রেকর্ডটিও ভেঙেছে ৬০ সেকেন্ডের ব্যবধানে। ওই উচ্চতায় উঠতে আগে ২০২ সেকেন্ড সময় লাগতো।


মহাশূন্যে এ পর্যন্ত যুক্ত করা সবচেয়ে শক্তিশালী প্রোপালশন ব্যাটারি প্যাক যুক্ত করেছে রোল-রয়েস। যা দিয়ে এক সাথে সাড়ে সাত হাজার ফোন চার্জ করা সম্ভব।

জেট জিরো উদ্যোগকে বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এটি আরেকটি মাইলফলক। যাদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনায় আছে নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন। যার মাধ্যমে কার্বন নিঃসরণকে নিয়ে আসা যাবে শূন্যের কোঠায়।


একাত্তর/ এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন