ঢাকা ২২ জানুয়ারী ২০২২, ৮ মাঘ ১৪২৮

স্ত্রীকে ভালোবেসে তাজমহল বানালেন আরেক ভারতীয়

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২১ ২১:৩৪:১৫ আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০২১ ২২:০৭:০৩
স্ত্রীকে ভালোবেসে তাজমহল বানালেন আরেক ভারতীয়

স্ত্রীকে ভালোবেসেছেন তিনি শাহজাহানের মতো করে। আর তা প্রমাণ করতে শাহজাহানের তৈরি করা তাজমহলের আদলেই বাড়ি তৈরি করেছেন স্ত্রীর জন্য। খবর বিবিসির।

এমন ঘটনাই ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুরে।

৫২ বছর বয়সী ভারতীয় ব্যবসায়ী আনন্দ প্রকাশ তাজমহলের আদলে তৈরি করা এ 'ভালোবাসার স্মৃতিস্তম্ভ' উপহার দিয়েছেন তার সাথে জীবনের ২৭ বসন্ত ভাগ করে নেয়া সঙ্গীর জন্য।


স্ত্রীর সাথে সাথে এটি শহর ও জনগণের জন্যেও আমার উপহার বলে বিবিসিকে জানান আনন্দ।

বাড়িটি তৈরি করতে সময় লেগেছে তিন বছর এবং খরচ হয়েছে প্রায় ২০ মিলিয়ন রুপি। তাজমহলের আদলে তৈরি বাড়ির গম্বুজ ২৯ ফুট। এর মেঝে তৈরি হয়েছে রাজস্থানের মকরানে।

বাড়ির আসবাবপত্র তৈরি করেছেন মুম্বাইয়ের শিল্পীরা। বাড়িটিতে একতলায় দুটি বেডরুম এবং দোতলায় আরও দুটি বেডরুম রয়েছে।


এছাড়াও রয়েছে হলঘর, লাইব্রেরি ও মেডিটেশন রুম। বাড়িটির অন্দরমহল ও বাইরের আলোকসজ্জা এমনভাবে করা হয়েছে, যাতে আসল তাজমহলের মতো অন্ধকারেও জ্বলজ্বল করে।

আরও পড়ুন: পদত্যাগের চারদিন পর প্রধানমন্ত্রী পদে ফিরলেন অ্যান্ডারসন

বাড়িটির প্রকৌশলী প্রবীণ আনন্দ জানান, এটি তৈরি করার সময় অনেক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছিল তাকে। বাড়ি তৈরির আগে আসল তাজমহলকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করেছিলেন তিনি।


তাজমহল আগ্রা শহরের ১৭ শতকের একটি সমাধি। এটি মুঘল সম্রাট শাহজাহান তার রানী মমতাজের স্মরণে তৈরি করেছিলেন। মমতাজ তাদের ১৪ তম সন্তানের জন্ম দেওয়ার সময় মারা যান।

অত্যাশ্চর্য মার্বেল স্মৃতিস্তম্ভটি জটিল জালি কাজের জন্য বিখ্যাত। এটি ভারতের অন্যতম বৃহত্তম পর্যটক আকর্ষণকেন্দ্র। মহামারীর আগে তারকা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিসহ প্রতিদিন প্রায় ৭০,০০০ মানুষ দূরদূরান্ত থেকে এটি দেখতে আসতো।


একাত্তর/টিএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন