ঢাকা ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৬ মাঘ ১৪২৮

দক্ষিণ কোরিয়াতে পাঁচ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ২২:৪০:১৪ আপডেট: ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ২৩:০২:৩২
দক্ষিণ কোরিয়াতে পাঁচ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

জাপানের পর এবার দক্ষিণ কোরিয়াতেও মিলেছে ওমিক্রন। দেশটিতে পাঁচ জনের শরীরে পাওয়া গেছে করোনার নতুন এই ধরনটির উপস্থিতি। এদের মধ্যে চার জনই আফ্রিকা ফেরত।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) দক্ষিণ কোরিয়ার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা জানিয়েছে, ওমিক্রন ভেরিয়েন্টের প্রথম শনাক্ত হয় এক দম্পতির মধ্যে। তারা সম্প্রতি নাইজেরিয়া ভ্রমণ করেছিলেন।

পরে তাদের সঙ্গে দেখা করতে আসা ৩০ বছরের এক আত্মীয়েরও ওমিক্রন শনাক্ত হয়। ১২-২৩ নভেম্বর পর্যন্ত নাইজেরিয়াতে থাকার পর এই দম্পতি ২৪ নভেম্বর কোরিয়ায় ফিরে আসেন।

এই দম্পতির দুই ডোজ টিকা নেওয়া থাকায়, তাদেরকে কোয়ারেন্টাইন থেকে রেহাই দেয়া হয়। ফলে ঘুরে বেড়িয়েছেন ইনচিওনের এই বাসিন্দা।

এছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে নাইজেরিয়া ভ্রমণ করে আসা আরো দুইজনের দেহে ওমিক্রন পাওয়া যায়। তার দু’জনেই ৫০ বছরের নারী। তাদের টিকা দেয়া নেই।

আরও পড়ুন: ওমিক্রনকে ঠেকাতে সময়ের সঙ্গে লড়ছে বিশ্ব

দক্ষিণ কোরিয়ার স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত যে পাঁচজন ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত, তাদের মধ্যে মৃদু লক্ষণ ছাড়া বড় কোন উপসর্গ নেই।

এদিকে, দক্ষিণ কোরিয়ায় আবারো বাড়তে শুরু করেছে করোনার সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১২৩ জন। 

দেশটির হাসপাতালে বাড়ছে গুরুতর রোগীর সংখ্যা। রাজধানী সিউলের বেশিরভাগ হাসপাতালে খালি নেই আইসিইউ বেড।

মধ্যপ্রাচ্যে প্রথম সৌদি আরবে ওমিক্রন শনাক্ত

সৌদি আরবে একজন করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি উত্তর আফ্রিকার একটি দেশ ভ্রমণ করেছিলেন।

বুধবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি এ খবর দিয়েছে। এতে আরো বলা হয়েছে তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এটি মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় ওমিক্রন শনাক্ত হওয়া প্রথম ঘটনা। শনাক্ত ব্যক্তি একজন সৌদি নাগরিক।

ওমিক্রনের উপস্থিতি শনাক্ত হবার সঙ্গে সঙ্গে সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নাগরিকদের টিকা সম্পূর্ণ করার আহ্বান জানিয়েছে।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন