ঢাকা ২৯ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে: ফখরুল

শফিক আহমেদ, একাত্তর
প্রকাশ: ১১ ডিসেম্বর ২০২১ ২২:৪৬:২৬ আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০২১ ২২:৪৯:৫৭
মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে: ফখরুল

সরকার র‌্যাব-পুলিশ দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের গুম-খুন করেছিলো দাবি করে দলটির নেতারা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় সেটি প্রমাণ হয়েছে।

স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে এই নিষেধাজ্ঞাকে দেশের জন্য অপমানজনক উল্লেখ করে বিএনপি নেতারা জানান, সরকার অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়, তার অপেক্ষায় আছেন তারা। সেটি দেখার অপেক্ষায় আছে বিএনপির নেতারা।

শনিবার (১১ ডিসেম্বর) ঢাকার শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, র‌্যাব কর্মকর্তাদের আমেরিকা প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়া বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক।

তিনি আরো বলেন, আমেরিকা মনে করে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দেশ নয়। এ কারণে তারা গণতান্ত্রিক সম্মেলনে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানায়নি। আমরা বারবার বলেছি, একযুগ ধরে বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে। একটি দল গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকার জন্য সারাবিশ্বে আমাদের ভাবমূর্তিকে ভূলুণ্ঠিত করছে।

এদিকে, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে এক আলোচনা সভায় র‍্যাবের সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা দেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রমাণ বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি দাবি করেন, ২০০৯ সাল থেকে র‌্যাব গুম খুনের সাথে জড়িত। এ বিষয়ে বিএনপি বার বার প্রমাণ দিলেও সরকার কোন ব্যবস্থা নেয়নি। আর এ কারণেই যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা এসেছে। এখন সরকার কি ব্যবস্থা নেয় তা দেখার অপেক্ষায় আছে বিএনপি।

আরও পড়ুন: আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা খুবই দুঃখজনক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফখরুল বলেন, আমরা এতোদিন ধরে বলে আসছি মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে। আমরা বলে আসছি এই সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করছে, পুলিশকে ব্যবহার করছে, প্রশাসনকে ব্যবহার করে মানুষকে হত্যা করতে। আজকে প্রমাণিত হয়েছে। দেখতে চাই যারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার কী ব্যবস্থা নিচ্ছে।

বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি না দেওয়াকেও চরম মানবাধিকার লঙ্ঘন বলে দাবি করেন দলটির মহাসচিব।

একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন