ঢাকা ২৯ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

আলালের বিচার দাবি, ক্ষমা না চাইলে আইনি ব্যবস্থা

রহিম রুমন, একাত্তর
প্রকাশ: ১১ ডিসেম্বর ২০২১ ২২:৫৮:২০ আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০২১ ২২:৫৮:৩৩
আলালের বিচার দাবি, ক্ষমা না চাইলে আইনি ব্যবস্থা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের শাস্তি দাবি করেছেন শেরেবাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা।

সেই দাবি সঙ্গে একমত জানিয়ে ডা. দীপু মনি বলেছেন, আলাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ কটূক্তি করেছেন। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়।

আর অশালীন মন্তব্যের জন্য ক্ষমা না চাইলে আলালের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে এবার সোচ্চার হলেন শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা।

এক সময় এই স্কুলের ছাত্রী ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার স্কুলের সামনে মানববন্ধনে যোগ দিয়ে আলালের মন্তব্যের জন্য শাস্তি দাবি করেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

একই সঙ্গে আলালকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে বলে জানান তারা। এছাড়া ঢাকাসহ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নারী শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের নিয়ে আন্দোলন করার কথা জানান তারা।

এতে একাত্মতা জানিয়ে আলালের বিচার দাবি করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, বিএনপির যে তথাকথিত রাজনীতি পুরোটাই অপরাজনীতি। এই দেশটাকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। সেই ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তকারীদেরই একজন আলাল যে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেছেন তার প্রতিবাদে এই কর্মসূচি।

তিনি বলেন, সারাদেশ আজ ক্ষুব্ধ তার কারণ এ ধরনের অসদাচরণ কখনোই কারো কাছেই কাম্য নয়। আমাদের দেশে যে প্রচলিত আইন রয়েছে এ ধরনে ঔদ্ধত্যপূর্ণ কটূক্তির বিরুদ্ধে সে আইন প্রয়োগ করা হোক, আমি সেটি কামনা করি।

এদিকে, সিরডাপ মিলনায়তনে এক গোলটেবিল আলোচনায় যোগ দিয়ে আলালের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের দেয়া বক্তব্য সাতদিনের মধ্যে প্রত্যাহার না করা হলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি নেতা আলাল যে কুরুচিকর বক্তব্য দিয়েছে, এ নিয়ে একটি মামলা হয়েছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম সেই মামলার নিন্দা করে প্রকারান্তরে বক্তব্যের প্রতি সমর্থন দিয়েছেন। আমরা তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানাই।

আরও পড়ুন: মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে: ফখরুল

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, অশুভ পন্থায়, অবৈধ পন্থায় ক্ষমতা দখল করে দল গঠন করার ফলে তাদের মধ্যে রাজনৈতিক শিক্ষাও নাই এবং শালীনতাও তাদের মধ্যে ছিলো না। আজকে শুধু আলাল নয়, বিএনপি শীষ নেতা বেগম খালেদা জিয়াও শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করেতও পিছপা হননি।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতা তারেক রহমান লন্ডনে বসে কর্মীসভা করে, জাতির পিতার নাম নেয়ার সময় শ্রদ্ধা নিয়ে পুরো নামটা উচ্চারণ করে না। এরা কত বড় অসভ্য, অশিক্ষিত হলে এসব করতে পারে। জননেত্রী শেখ হাসিনা তার মায়ের বয়সী, তার পুরো নামটাও নেয় না। বিএনপি নামক দলটি শালীনতা বিবর্জিত, অসভ্য, কুরুচিপূর্ণ দল এটা বারবার প্রমাণিত।

একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন