ঢাকা ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৬ মাঘ ১৪২৮

আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ০৪ জানুয়ারী ২০২২ ১১:০৭:৪২ আপডেট: ০৪ জানুয়ারী ২০২২ ১১:২৯:৪১
আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

সরকারি নির্দেশের পরও খুচরা পর্যায়ে তরল গ্যাসের দাম কমেনি। আগের দামেই গ্যাসের সিলিন্ডার বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

সোমবার বিইআরসি আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জানুয়ারি মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে তরল গ্যাসের মূল উপাদান প্রোপেন ও বিউটেনের দাম যথাক্রমে প্রতি টন ৭৯৫ ডলার থেকে কমে ৭৪০ এবং ৭৫০ ডলার থেকে কমে ৭১০ ডলারে নেমেছে।

প্রোপেন ও বিউটেনের মিশ্রণ অনুপাত বিবেচনায় এই নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে ১২ কেজি সিলিন্ডারের এলপিজির দাম ৫০ টাকা কমে এখন দাম পড়ার কথা ১ হাজার ১৭৮ টাকা। 

গত সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে এই দাম কার্যকর করার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন, বিইআরসি। অথচ সকালে রাজধানী ও রাজধানীর বাইরের বাজারের তথ্য অনুযায়ী গ্যাস বিক্রি হচ্ছে আগের দামে। এক্ষেত্রে ব্যবসায়ীরা বেশে দামে কেনার অযুহাত দিচ্ছেন।

এর আগে মুসকসহ প্রতি কেজি এলপিজির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল ১০৯ টাকা ৮২ পয়সা। গত ৪ নভেম্বর এই দাম কার্যকর করা হয়। আজকের নতুন বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, এলপিজির মূল্য এখন ৯৮ টাকা ১৭ পয়সা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বেসরকারি খাতে সব এলপিজির দাম কমেছে। সাড়ে পাঁচ কেজি এলপিজির দাম আগে ছিল ৬০২ টাকা। এখন সেই দাম কমে হয়েছে ৫৪০ টাকা। সাড়ে ১২ কেজির এলপিজির নতুন দাম ১ হাজার ২২৭ টাকা। গত নভেম্বরে এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ১ হাজার ৩৬৮ টাকা। ১৫ কেজি এলপিজির নতুন দাম ১ হাজার ৪৭৩ টাকা।

এছাড়া ১৬ কেজির দাম ১ হাজার ৫৭১ টাকা, ১৮ কেজির দাম ১ হাজার ৭৬৭ টাকা, ২০ কেজির দাম ১ হাজার ৯৬৩ টাকা, ২২ কেজির দাম ২ হাজার ১৬০ টাকা, ২৫ কেজির দাম ২ হাজার ৪৫৪ টাকা, ৩০ কেজির দাম ২ হাজার ৯৪৫ টাকা, ৩৩ কেজির দাম ৩ হাজার ২৪০ টাকা, ৩৫ কেজির দাম ৩ হাজার ৪৩৬ টাকা ও ৪৫ কেজির দাম নতুন করে নির্ধারণ করা হয়েছে ৪ হাজার ৪১৮ টাকা।


একাত্তর/ এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন