ঢাকা ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৬ মাঘ ১৪২৮

শুভ জন্মদিন এলভিস প্রিসলি

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ০৮ জানুয়ারী ২০২২ ১৫:০৬:৪৮ আপডেট: ০৮ জানুয়ারী ২০২২ ১৫:২৪:০৮
শুভ জন্মদিন এলভিস প্রিসলি

এলভিস প্রিসলিকে বলা হয় রক অ্যান্ড রোলের রাজা। রক অ্যান্ড রোল, কান্ট্রি, গসপেল, রকাবিলি এবং আর অ্যান্ড বি। গানের এ পাঁচ ঘরানাতেই চমক সৃষ্টি করেছিলেন, রেখেছিলেন বিশেষ অবদান।

১০০ কোটি অ্যালবাম বিক্রি হয়েছিল তাঁর। অভিনয় করেছিলেন ৩১টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে। একাধারে নায়ক ও গায়ক এলভিস প্রিসলির আজ ৮৭তম জন্মদিন।

স্টেজ বা লাইভ কনসার্টে দর্শক মাতানো এলভিস প্রিসলি একাধারে গায়ক, নায়ক, টিভি শো পারফর্মার বহু গুণ তাকে করেছে ইতিহাস। ‘হার্টব্রেক হোটেল’ গানটি প্রকাশের পর প্রথম পরিচিতি আসে এলভিস প্রিসলির।

প্রথম একক অ্যালবাম ‘এলভিস প্রিসলি’ বেরোলে সেটিও ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। টানা ১০ সপ্তাহ বিলবোর্ড টপ চার্টের এক নম্বরে ছিল অ্যালবামটি।

পঞ্চাশের দশকে দারুণ সব গান উপহার দেন এলভিস প্রিসলি। ‘হাউন্ড ডগ’, ‘ডোন্ট বি ক্রুয়েল’, ‘ব্লু শুডে সুজ’, ‘লাভ মি টেন্ডার’, ‘অল শুক আপ’ এবং ‘জেলহাউস রক’ দিয়ে পুরো দশক নিজের দখলে নেন এই শিল্পী।

ষাটের দশকের শুরুতে ‘ইটস নাও অর নেভার’, ‘আর ইউ লোনসাম টুনাইট’ গানগুলোও সৃষ্টি করে উন্মাদনা। একপর্যায়ে টেলিভিশনে গাইতে শুরু করলেন প্রিসলি।

১৯৫৬ সালে প্রিসলি অভিনয় শুরু করেন। সে বছর তাঁর প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা ‘লাভ মি টেন্ডার’ মুক্তি পায়। ছবিটি হিট হলে সিনেমার প্রযোজকেরা তাঁর পেছনে ধর্ণা দিতে থাকেন।

তারপরের দুই দশকের সংগীত ও সিনেমার ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা হয়ে যায় প্রিসলির নাম। প্রায় ১৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সিনেমার টিকিট বিক্রি হয়েছিল কেবল প্রিসলি নামে।

১৯৭৭ সালের জুন মাসে ইন্ডিয়ানায় কনসার্ট করেন প্রিসলি। এরপর কনসার্ট ছিল আগস্টের ১৭ তারিখ। আগের দিন প্রিসলিকে নিজের ঘরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। হৃদ যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ৪২ বছর বয়সে মারা যান প্রিসলি।

গানের জন্য গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডস তাঁকে দিয়েছে আজীবন সম্মাননা।

একাত্তর/ এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন