ঢাকা ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, বহু হতাহতের আশঙ্কা

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারী ২০২২ ১৯:৩১:৪০ আপডেট: ১৩ জানুয়ারী ২০২২ ২০:৪৫:১৪
পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, বহু হতাহতের আশঙ্কা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে এক ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেল পাঁচটায় জলপাইগুড়ির দোমোহনি এলাকায় গুয়াহাটিগামী বিকানের এক্সপ্রেস ট্রেন লাইচ্যুত হয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনজনের লাশ উদ্ধারের খবর জানিয়েছে জলপাইগুড়ির জেলা প্রশাসন। 


জেলা প্রশাসক মৌমিতা গোদারা বসু জানান, এখনও উদ্ধারকাজ চলছে  ময়নাগুড়ি স্টেশনে ঢোকার মুখেই ঘটেছে দুর্ঘটনাটি। আমরা আলোর ব্যবস্থা করে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছি। ভেতরে আরও কারও মৃত্যু হয়েছে কি না তা জানতে চেষ্টা চলছে। আহত অবস্থায় এখন পর্যন্ত অন্তত ৪০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৬ জনকে ময়নাগুড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ১৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ভিডিও চিত্রে দেখা গেছে, দুর্ঘটনার পর ট্রেনটির ৪-৫টি কামরা দুমড়েমুচড়ে গেছে। একটি কামরার ওপরে উঠে গেছে আরেকটি কামরা। একটি কামরা পড়ে গেছে পানিতে। 

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটির গতি ছিল ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। মনে করা হচ্ছে, দুর্ঘটনায় ট্রেনটির ইঞ্জিনের পর থেকে অন্তত ১২টি কামরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ট্রেনটি ছাড়ার সময় তাতে প্রায় ৭০০ যাত্রী ছিলেন। 

দুর্ঘটনার পরে রেললাইনের দুই পাশে যাত্রীদের ছড়িয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। অনেকে আবার আটকা পড়েছে দুমড়েমুচড়ে যাওয়া কামরাগুলোতে। গ্যাস কাটার নিয়ে এসেও কামরা কেটে যাত্রীদের উদ্ধার করার চেষ্টা করছেন উদ্ধারকারীরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে রেলের উদ্ধারকারী দলও।

রেলের এক কর্মকর্তা জানান, দ্রুত উদ্ধারকাজে নামা হয়েছে। কিন্তু অন্ধকার নেমে আসায় উদ্ধারকাজে প্রচণ্ড বেগ পাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা। 

ইতিমধ্যেই প্রায় ৫১টি অ্যাম্বুল্যান্স ঘটনাস্থলে পৌঁছে গেছে। এর মধ্যে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতাল থেকেই ৩০টি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে গেছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসক নার্সদেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রস্তুতির।


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন