ঢাকা ০৯ আগষ্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯

করোনায় অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় এমন জিন শনাক্ত

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৫ জানুয়ারী ২০২২ ১২:১১:০৫ আপডেট: ১৫ জানুয়ারী ২০২২ ১২:১৩:২৮
করোনায় অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় এমন জিন শনাক্ত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকি দ্বিগুণেরও বেশি বাড়িয়ে দেয় এমন একটি জিনের খোঁজ পেয়েছেন পোল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন, তাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই গবেষণা নতুন পথ দেখাবে বলে আশা সংশ্লিষ্টদের।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) পোলিশ বিজ্ঞানীদের বরাতে ইউরো নিউজ এক প্রতিবেদনে জানায়, যাদের শরীরে এই জিন শনাক্ত হবে তাদের আরও সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে।    

পোল্যান্ডের মেডিকেল ইউনিভার্সিটি অব বিয়ালস্টকের গবেষকরা জানিয়েছেন, করোনায় একজন মানুষ কতোটা গুরুতর অসুস্থতায় ভুগবেন তা নির্ধারণে বয়স, ওজন এবং লিঙ্গের পর চতুর্থ গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক এই জিন।

গবেষণা প্রকল্পের প্রধান অধ্যাপক মার্সিন মনিউসকো বলেন, পোল্যান্ডের জনসংখ্যার প্রায় ১৪ শতাংশের মধ্যে এই জিন রয়েছে। অন্যদিকে ইউরোপে ৮ থেকে ৯ শতাংশ মানুষের দেশে রয়েছে এ জিন। আর ভারতে রয়েছে ২৭ শতাংশের মধ্যে।

এর আগে গত নভেম্বরে ব্রিটিশ বিজ্ঞানীর জানিয়েছিলো, করোনা আক্রান্তদের ফুসফুসকে অকার্যকর করার ঝুঁকি দ্বিগুণ বাড়িয়ে তোলে জিনের এমন একটি সংস্করণকে তারা চিহ্নিত করেছেন।

পোল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যাডাম নিডজিয়েলস্কি বলেছেন, দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে কাজ করার পর গুরুত্বপূর্ণ এ জিনটি চিহ্নিত করা গেছে। করোনায় গুরুতর অসুস্থ হওয়ার জন্য দায়ি এ জিনটি চিহ্নিত করার ফলে করোনার চিকিৎসা দেওয়া আরও সহজ হবে।   

তিনি আরও বলেন, করোনায় যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছেন, ভবিষ্যতে তাদের আমরা চিহ্নিত করতে পারবো।

আরও পড়ুন: ইউক্রেনে হামলার পরিকল্পনা করছে রাশিয়া: যুক্তরাষ্ট্র

এদিকে পোলিশ বিজ্ঞানীদের মতে, মধ্য ও পূর্ব এশিয়ায় টিকা নিতে মানুষের মধ্যে অনিহা কাজ করে, ফলে এ অঞ্চলে মৃত্যুহারও বেশি।  

তারা বলছেন, যাদের শরীরে ওই জিন থাকবে, তাদেরকে শারীরিক ঝুঁকির বিষয়টি বুঝিয়ে বলতে হবে এবং টিকা নিতে তাদের আরও উৎসাহ দিতে হবে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত হলে তাদের আরও নিখুঁতভাবে চিকিৎসা দিতে হবে। 


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

১ মাস ৭ দিন আগে