ঢাকা ২৯ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

আল-আকসা মসজিদে ইসরাইলি আগ্রাসনের অভিযোগ

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৭ জানুয়ারী ২০২২ ২১:০২:৪০ আপডেট: ১৭ জানুয়ারী ২০২২ ২১:০৩:২১
আল-আকসা মসজিদে ইসরাইলি আগ্রাসনের অভিযোগ

মুসলমানদের পবিত্র তীর্থস্থান আল-আকসা মসজিদে ইসরাইলি ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা আগ্রাসন চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিনি। 

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) ইসরাইলিরা এ ঐতিহাসিক মসজিদে অবৈধভাবে প্রবেশ করে তাণ্ডব চালিয়েছে বলে জানা গেছে। তবে এ ঘটনায় মসজিদটির ঠিক কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা জানা যায়নি। 

সংবাদমাধ্যম মিডিল ইস্ট মনিটর একাধিক ফিলিস্তিনি সংস্থার বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে।   

জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ ও অন্য পবিত্র স্থানের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা জর্ডানের ইসলামিক ওয়াকফ বিভাগ এক বিবৃতিতে জানায়, ইসরায়েলি ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা আল-মুগারবাহ গেট দিয়ে আল-আকসা মসজিদ কমপ্লেক্সের মধ্যে প্রবেশ করে। এ সময় তাদের নিরাপত্তা দিচ্ছিলো ইসরাইলি পুলিশ।  

তবে ইসরাইলের সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইসরাইল এক প্রতিবেদনে বলছে, মানুষ যাতে আরও বেশি করে আল-আকসা মসজিদে যেতে পারে সেই জন্যই এই পরিকল্পনা। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি, নতুন শিক্ষামূলক কর্মসূচির বিকাশ ও বিদ্যমান উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর পাশপাশি সেখানে যাতে আরও বেশি দর্শনার্থী যাতে পারে সেই উদ্যোগ নিয়েছে ইসরাইল সরকার। 

আরও পড়ুন: ‘কাকা’ তৈমুরকে মিষ্টিমুখ করালেন আইভী

এদিকে ফিলিস্তিনের ওয়াকফ ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় জানায়, ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা আল-আকসা মসজিদে হামলা ও বিশৃঙ্খলা করেছে।  

মুসলিমদের তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ তীর্থস্থান হিসবে জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদের গুরুত্ব ব্যাপক। ইহুদিরা আল-আকসা মসজিদ সংলগ্ন এলাকাকে টেম্পল মাউন্ট বলে অভিহিত করে। এখানে প্রাচীনকালে দুটি ইহুদি মন্দির বা উপাসনালয় ছিলো বলেও দাবি তাদের। এই স্থানকে ঐতিহাসিকভাবে নিজেদের বলে দাবি করে ইসরাইল।  


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন