ঢাকা ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

কঙ্গোর কারাগারে ৫৬ নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১০ জনের কারাদণ্ড

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২০ জানুয়ারী ২০২২ ১৮:১২:৫২ আপডেট: ২০ জানুয়ারী ২০২২ ২০:০৫:৩৩
কঙ্গোর কারাগারে ৫৬ নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১০ জনের কারাদণ্ড

আফ্রিকা মহাদেশের কঙ্গোর একটি কারাগারে ৫৬ নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় ১০ বন্দিকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে কঙ্গোর লুবুম্বাশির কাসাপা কারাগারে বিদ্রোহ করেন বন্দিরা। তিনদিন ধরে চলা ওই বিদ্রোহের সময় নারী বন্দিদের সেল ভেঙে ৫৬ জনকে ধর্ষণ করে বিদ্রোহীরা।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) ধর্ষণের শিকার ওই নারীদের আইনজীবীদের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, ধর্ষণের শিকার তিনজনের এইচআইভি শনাক্ত হয়েছেন। তাছাড়া অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন ১৬ জন।

ভুক্তভোগীদের আইনজীবী মেলানিয়া মুম্বা বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, বিচার পাওয়ার জন্য দীর্ঘ সংগ্রামের পর আমরা এই রায়ে সন্তুষ্ট।

হাউট-কাটাঙ্গার নিরাপত্তা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট পিটার এনটাঙ্গালো বলেন, ৩০ জনের বেশি নারীকে ধর্ষণের জন্য আদালত ১০ জনকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে বিদ্রোহ চলাকালে তারা সেল ভেঙে নারী বন্দিদের ধর্ষণ করেন।

আরও পড়ুন: বাসে উঠতে না চাওয়ায় যাত্রীকে মারধর, টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ

যদিও আদালতের প্রসিকিউটররা অপরাধীদের ২০ বছরের কারাদণ্ডের দাবি করেছিলেন। পরে তা কমিয়ে ১০ বছর করে আদালত। 

এদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন। তাদের দাবি, কারাগারের খারাপ পরিবেশের কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে। 

কঙ্গোসহ আফ্রিকার অনেক দেশেই সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রায়ই কারা বিদ্রোহের ঘটনা ঘটে।


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন