ঢাকা ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সরকারি খরচে আইনি সেবা পেয়েছেন সাত লক্ষাধিক মানুষ

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২২ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:৪৩:৩৮
সরকারি খরচে আইনি সেবা পেয়েছেন সাত লক্ষাধিক মানুষ

২০০৯ সাল থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার (লিগ্যাল এইড) মাধ্যমে ৭ লাখ ২ হাজার ২৫ জন সরকারি খরচায় আইনি সহায়তা পেয়েছেন।

জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এই সেবা গ্রহণকারীদের মধ্যে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে ২৩ হাজার ৮০৭ জন, দেশের ৬৪ টি জেলার লিগ্যার এইড অফিসের মাধ্যমে ৫ লাখ ২২ হাজার ৪৪৪ জন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম শ্রমিক আইনি সহায়তা সেলের মাধ্যমে ২৪ হাজার ১৩৪ জন এবং জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার নির্ধারিত হটলাইন কলসেন্টার ১৬৪৩০ নম্বরে (টোল ফ্রি) ১ লাখ ৩১ হাজার ৬৪০ জন বিনামূল্যে আইনি সহায়তা পেয়েছেন। খবর বাসসের।

এছাড়াও অসচ্ছল বিচারপ্রার্থীদের ৭৯ কোটি ৭৮ লাখ ৫৯ হাজার ৩২২ টাকা ক্ষতিপূরণ আদায় করে দেয় জাতীয় আইনগত সতায়তা সংস্থা। এর মধ্যে দেশের ৬৪ জেলার লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে ৭৪ কোটি ৮ লাখ ৮ হাজার ৭১১ টাকা এবং  ঢাকা ও চট্টগ্রাম শ্রমিক আইনি সহায়তা সেলের মাধ্যমে ৫ কোটি ৭০ লাখ ৫০ হাজার ৬১১ টাকা আদায় করে দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, লিগ্যাল এইডে আইনি সহায়তা দেয়া হয়েছে মোট ৩ লাখ ৯ হাজার ৪৮৭ মামলায়। এর মধ্যে আইনি সহায়তার মাধ্যমে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৮৬৮ টি মামলা নিস্পত্তি হয়েছে। বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি সেবার (এডিআর) মাধ্যমে লিগ্যাল এইডে মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে ৫০ হাজার ৩৫৩টি। ২০১২ সাল থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ৯১ হাজার ৬১৩ জন কারাবন্দীকে দেশের ৬৪ জেলার লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়েছে বলে সংস্থার প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

আরও পড়ুন: পিবিআই প্রধানসহ ৭ জন অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক পদে পদোন্নতি

করোনা সংকটেও জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার অধীনে আর্থিকভাবে অসচ্ছল বিচারপ্রার্থীদের সারাদেশের আদালতসমূহে আইনি সহায়তা অব্যাহত রয়েছে। করোনার মধ্যে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস কার্যক্রমও অব্যাহত রয়েছে। বর্তমানে করোনার এই প্রাদুর্ভাবের কারণে আইনি সহায়তা প্রত্যাশীরা অফিসের নির্ধারিত নাম্বারে যোগাযোগ করলেই আইনি পরামর্শ পাচ্ছেন। জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার নির্ধারিত হটলাইন নাম্বার ১৬৪৩০ নম্বরে (টোল ফ্রি) আইনি সেবা অব্যাহত রয়েছে।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন