ঢাকা ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সাবলেট ভাড়াটিয়াকে হত্যায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিনিধি, মানিকগঞ্জ
প্রকাশ: ২৮ জানুয়ারী ২০২২ ১৭:২৯:০০ আপডেট: ২৮ জানুয়ারী ২০২২ ১৭:৩০:১৪
সাবলেট ভাড়াটিয়াকে হত্যায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে মারজিয়া আক্তার (৩০) হত্যা মামলায় জড়িত স্বামী ও স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) তাদেরকে ফৌজদারী কার্যবিধি’র ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীর জন্য আদালতে পাঠানো হয়। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানার ষোলঘর (খন্ডপাড়া) গ্রামের মৃত শেখ সিদ্দিকের ছেলে শেখ মাসুদ (৩৮) ও তার স্ত্রী রেখা (৩৩)।

শুক্রবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খান।

পুলিশ সুপার জানান, গত ১৪ জানুয়ারি বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিংগাইরের ওয়াইজনগর থেকে ফতেপুরগামী কাঁচা রাস্তার পশ্চিম পাশের খাল থেকে কার্টন প্যাকেটে ভর্তি অর্ধগলিত গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরই সূত্র ধরে মাসুদ ও রেখাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

মাসুদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, নিঃসন্তান মারজিয়া প্রায় ৬-৭ বছর আগে তার স্বামীকে ডিভোর্স দেন। ডেন্টাল হাসপাতালে কাজ শিখার জন্য ঢাকার মিরপুরে মাসুদের ভাড়া বাসায় সাবলেট হিসেবে ভাড়া থাকতেন তিনি। 

আরও পড়ুন: বোমা ফাটিয়ে চাঁদাবাজির দায়ে তিনজন গ্রেপ্তার

মারজিয়ার তার স্বজনদের সাথে কোন পারিবারিক সম্পর্ক ছিল না। এই সুযোগে মাসুদ তাকে একা পেয়ে টাকা ও স্বর্ণালংকার আত্মসাৎ করার জন্য পরিকল্পিতভাবে ঢাকার বাসায় গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ধারালো ছুরি দিয়ে জবাই করেন। লাশ গুম করার জন্য মাসুদ ও তার স্ত্রী রেখা মারজিয়ার মরদেহ কার্টনে প্যাকেট করে ফেলে যান।

গ্রেপ্তারের পর মাসুদ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেন এবং তার স্বীকারোক্তি ও তথ্যমতে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানার কাঁচ-পুর এলাকা থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো চাকু ও মারজিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, মামলাটির আনুষঙ্গিক তদন্ত শেষ করে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। 


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন