ঢাকা ১২ আগষ্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

নিউইয়র্কে বুটিক বন্ধুর মেলায় বিপুল সাড়া

বিশেষ প্রতিনিধি, নিউইয়র্ক
প্রকাশ: ২১ মার্চ ২০২২ ১১:০২:১২
নিউইয়র্কে বুটিক বন্ধুর মেলায় বিপুল সাড়া

উৎসবের আনন্দে মেতে থাকা বাঙালি সংস্কৃতির অন্যতম একটি অনুষঙ্গ। এদিকে শিগগিরই বৈশাখ আসছে, সামনে ঈদ। 

আর এসব উপলক্ষকে সামনে রেখে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো একটি জমজমাট মেলা। 'বুটিক বন্ধু মেলা' শিরোনামে এই মেলায় ছিল অসংখ্য প্রবাসীর অংশগ্রহণ। 

রোববার (২০ মার্চ) ছুটির দিনে জ্যামাইকার একটি হলরুমে আয়োজন করা হয় এই মেলার। বাংলাদেশি ঐতিহ্যবাহী শাড়ী, অন্যান্য পোশাক, জুয়েলারিসহ দেশজ শিল্পের নানা পসরা নিয়ে বসে এই মেলা। 

মূলত নিউইয়র্কের নারী উদ্যোক্তাদের আয়োজনে এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়। আর এতে অংশ নেয় পাঁচটি প্রতিষ্ঠান।

মেলার অন্যতম আয়োজক এন জে বুটিক-এর প্রধান নুসরাত জাহান এলিন বলেন, প্রবাসে বাংলাদেশের সংস্কৃতির বিকাশে নানা ধরণের উদ্যোগ রয়েছে। বিশেষ করে আগামী প্রজন্ম যেনো বাংলাদেশের শিল্প ও সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত হতে পারে, তার জন্য অনেক সংগঠন কাজ করছে। 

একইসাথে দেশীয় বিভিন্ন উৎসবে দেশের পোশাক মানুষের হাতে তুলে দেয়াই এসব সংগঠনের উদ্দেশ্য বলে জানান তিনি।

তিনি আরও জানান, প্রায় পাঁচ বছর ধরে নারী উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণে এই মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এখন এ উদ্যোগে বিপুল সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। ভবিষ্যতেও এই প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার প্রত্যয় প্রকাশ করেন তিনি।

মেলায় অংশ নেয়া অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে রুবি মোস্তফার ফ্যাশনিস্ট, জিন্নাত জামানের জিন্নাত ফ্যাশনা, জাহিদা আলমের ফ্যাশন উইথ জাহিদা এবং আইরিন রহমানের সিন্ডারেলাস ড্রিম ক্লোজেট। 

উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, তাদের বেশিরভাগ পোশাক ও গয়না বাংলাদেশ থেকে সংগ্রহ করা। বিশেষ করে ব্যক্তি উদ্যোগে গড়ে ওঠা ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানের কাপড় তারা নিয়ে এসে থাকেন। 

সেসব কাপড়ে থাকে সৃজনশীলতার ছোঁয়া, থাকে দেশীয় শিল্প সংস্কৃতির পরশ। এর বাইরেও উৎসব আয়োজনে বিক্রির জন্য নানা উৎস থেকে তারা কাপড় ও জুয়েলারি সংগ্রহ করে থাকেন।

ভবিষ্যতেও এই প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে সবার সহায়তা কামনা করেন নুসরাত জাহান এলিন। 


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

১ মাস ১০ দিন আগে