ঢাকা ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯

নানা আয়োজনে ইস্টার সানডে পালিত

মনির মিল্লাত, একাত্তর
প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০২২ ২০:৩৬:০৮
নানা আয়োজনে ইস্টার সানডে পালিত

সারাদেশে পালিত হলো খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে। রোববার (১৭ এপ্রিল) চার্চে চার্চে ধর্মীয় নানা আয়োজনে খ্রিস্ট ধর্মের প্রবর্তক যিশু খ্রিস্টের পুনরুত্থান দিবসটি পালন করা হয়। 

পাপের বিরুদ্ধে জয় হিসেবে যিশুর পুনরুত্থান খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের কাছে গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় উৎসব। সকাল থেকেই পবিত্র বাইবেল পাঠ, ধর্মীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে যিশুর বিজয়বার্তা উদযাপন করছেন যীশু খ্রিস্টের অনুসারীরা। 

জপমালা চার্চের প্রধান ধর্মযাজক ফাদার সুব্রত বলেন, প্রায় দুই হাজার বছর আগে পুণ্য শুক্রবারে যিশুকে ক্রুশবিদ্ধ করা হয়েছিল। এ ঘটনার তৃতীয় দিন রোববার মৃত্যুকে জয় করে জীবিত হয়ে ওঠেন তিনি। মানবজাতিকে পাপ থেকে মুক্ত করেন। যিশুখ্রিস্টের পুনরুত্থানের এই রোববারকেই ইস্টার সানডে বা পুনরুত্থান রোববার বলা হয়।


এদিকে ইস্টার সানডের সকাল থেকে রাজধানীর চার্চগুলোতে অনুষ্ঠিত হয় প্রার্থনা সভা। বাইবেল পাঠ, ধর্মীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে যিশুর পুনরুত্থানকে উদযাপন করা হয়। মানব জাতির মঙ্গল কামনায় অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ প্রার্থনা। খ্রিস্ট ধর্মযাজকরা যীশুর পুনরুত্থানকে মিথ্যার বিরুদ্ধে সত্যের জয় হিসেবে বর্ণনা করেন। 

আরও পড়ুন: হিজাব গুজবে জেলহাজতে সেই প্রধান শিক্ষক

করোনার কারণে গেলো দুই বছর ইস্টার সানডে কেটেছে নানা বিধি-নিষেধে। তবে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসায় এবার চার্চগুলোতে পুন্যার্থীদের ছিলো প্রচণ্ড ভিড়। সবার চাওয়া মানবজাতির মুক্তি ও কল্যাণ।

চার্চের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ইস্টার সানডের আনন্দে মাতেন খ্রিষ্টান ধর্মানুসারীরা। ঘরে ঘরে ছিলো নানা আনন্দ আয়োজন। 


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন