ঢাকা ১২ আগষ্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

দু’বছর মন্দার পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে ঈদকেন্দ্রিক অর্থনীতি

কাবেরী মৈত্রেয়, একাত্তর
প্রকাশ: ০২ মে ২০২২ ১৬:৩৭:৫৮
দু’বছর মন্দার পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে ঈদকেন্দ্রিক অর্থনীতি

দু’বছর মন্দার পর এবার প্রাণ ফিরে পেয়েছে ঈদকেন্দ্রিক অর্থনীতি। পোশাক,জুতার মতো বাহারি পন্যের পাশাপাশি বিক্রি হয়েছে বিলাসজাত পণ্য।

এদিকে ইফতার পার্টি, বিয়ে, ঈদের ছুটিতে গ্রামে ফেরা ও ভ্রমণ, সব মিলে এক লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকার লেনদেনের সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ঈদ কেন্দ্রিক টাকার এই প্রবাহ করোনা পরবর্তী অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে সহায়তা করবে। গতি পাবে লেনদেনেও।  

ঈদ মানেই বছরের বড় উৎসব। আর উৎসব মানেই নতুন পোশাক, বাহরি পোশাক ও জুতা আর হরেক রকম প্রসাধনীতে নিজেকে ও প্রিয়জনকে সাজিয়ে তোলা।

তাই উৎসবের রংয়ে নিজেকে মেলে ধরতে এক শপিং মল থেকে অন্য শপিং মলে ছুটেছেন ক্রেতারা। গভীর রাত পর্যন্তও সমানে চলছে কেনাকাটা।

মহামারীর প্রকোপ কমতেই ঈদ ফিরেছে স্বরূপে। উৎসবকে তার চিরায়ত রূপ ফিরিয়েদেয়ার পাশাপাশি দুই বছরের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে এতোটুকুও কার্পণ্য করেননি ব্যবসায়ীরা।

মূলধন জুগিয়েছেন পণ্য উৎপাদনসহ আমদানিতে। উৎপাদনেও গতি আনা হয়েছে।চেষ্টা হয়েছে সর্বোচ্চ সংখ্যক পণ্যের সমাগত ঘটানোর।

এবার চাপ ছিলো গাড়ি, ইলেকট্রনিক্স পণ্য বিকি-কিনিতেও। হোম এপ্লায়েন্সের বিকিকিনিও ছিলো চোখে পড়ার মতো। ফলে এসব খাতেও এসছে চাঙ্গা ভাব।

উৎসব প্রিয় বাঙালি পুরো রমজান মাস জুড়েই ইফতার ও সেহরির জন্য খরচ করেছেযে যার সাধ্য মতো। খাদ্য-খাবারে এই বিনিয়োগে ঘুরে দাঁড়িয়েছে রেস্তোরসহ খাবার কেন্দ্রিক বাণিজ্য।

এবারের ঈদের ছুটি দীর্ঘ। প্রিয়জনের সাথে ঈদ করছে ছুটে চলা কোটি মানুষ তো আছেনই। এর এর প্রভাবে পরিবহন খাতে যেমন সুবাতাস, তেমনি নুইয়ে পড়া পর্যটন খাতও গা ঝাড়া দিয়েছে।

নতুন টাকায় ঈদ মানে বাড়তি আনন্দ। এবারের ঈদে ২৩ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট ছেড়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি বলছে, ভোগ্যপণ্যসহ বিভিন্ন পণ্য ও সেবার বাড়তি এই চাহিদায় প্রত্যাশার চেয়ে বেশিই বেচাকেনা হয়েছে।

আর বিশ্লেষকরা বলছেন, দুই বছর পর এমন জমজমাট বিকিকিনিতে অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের গতিকে আরো বেগবান করবে।

একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

১ মাস ১০ দিন আগে