ঢাকা ১২ আগষ্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

বাংলাদেশ কনসার্টের অর্থ ব্যয় হবে সাইবার নিরাপত্তায়

শামীম আল আমিন, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র
প্রকাশ: ০৫ মে ২০২২ ১৩:৩৯:৫৩ আপডেট: ০৫ মে ২০২২ ১৫:০৩:২৮
বাংলাদেশ কনসার্টের অর্থ ব্যয় হবে সাইবার নিরাপত্তায়

গোল্ডেন জুবলি বাংলাদেশ কনসার্ট থেকে পাওয়া অর্থ দিয়ে গোটা বিশ্বেরস্বল্পোন্নত ও দরিদ্র দেশগুলোতে সাইবার নিরাপত্তায সচেতনতা তৈরিতে ব্যয় করা হবে। এজন্যবাংলাদেশের আইসিটি বিভাগ ও ইউএনডিপি একসঙ্গে কাজ করবে।

বুধবার, নিউইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এ সময় সঠিকভাবে পরিকল্পনা বাস্তাবায়নের মধ্যদিয়ে গোল্ডেন জুবলি বাংলাদেশকনসার্টকে সফল করার জন্য সবার প্রতি আহবান জানান তিনি।

বন্ধু জগৎ বিখ্যাত সেতারবাদক পণ্ডিত রবিশঙ্করের অনুরোধে দ্য কনসার্টফর বাংলাদেশের আয়োজন করেছিলেন সাড়া জাগানো সঙ্গীত শিল্পী জর্জ হ্যারিসন। বহু বছর পেরিয়েএসে, বাংলাদেশ এখন গোটা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

আর সেটাই গোটা বিশ্বের সামনে তুলে ধরতেই, গোল্ডেন জুবলি বাংলাদেশ কনসার্টেরআয়োজন। নিউইয়র্কে এসে এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানালেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিপ্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

৬ মে নিউইয়র্কের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনে এই কনসার্ট অনুষ্ঠিত হবে।অংশ নিচ্ছে জার্মানির ব্যান্ড স্করপিয়ন এবং বাংলাদেশের চিরকুট।

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় জগৎবিখ্যাতপণ্ডিত রবিশঙ্করের অনুরোধে দ্য কনসার্ট ফর বাংলাদেশের আয়োজন করেছিলেন সাড়া জাগানো সঙ্গীতশিল্পী জর্জ হ্যারিসন। দিনটি ছিল ১৯৭১ সালের ১ আগস্ট রেববার।

নিউইয়র্কের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনের সেই কনসার্ট থেকে পাওয়া অর্থইউনিসেফের মাধ্যমে ব্যয় হয়েছিল বাংলাদেশের শরনার্থীদের জন্য।

অর্ধশতক পেরিয়ে এসে বাংলাদেশ এখন গোটা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। আরতা পৃথিবীর মানুষের সামনে তুলে ধরতেই গোল্ডেন জুবলি বাংলাদেশ কনসার্টের আয়োজন। 

পলক আরও বলেন, কনসার্ট থেকে অর্জিত অর্থ ইউএনডিপিকে সঙ্গে নিয়ে ব্যয়করা হবে বিশ্বের পিছিয়ে পড়া দেশগুলোর সাইবার নিরাপত্তা সচেতনা তৈরির কাজে।

আগামী বছর থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গ্লোবাল সাইবার সিকিউরিটিবাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড দেয়া শুরু করবে ইউএনডিপি।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলামের সঞ্চালনায়অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সংসদ সদস্য মো. নুরুল আমিন ও অপরাজিতা হক, বাংলাদেশ হাইটেকপার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ এবং একাত্তর টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনাপরিচালক মোজাম্মেল বাবু উপস্থিত ছিলেন। 



একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

১ মাস ১০ দিন আগে