ঢাকা ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

প্রসবের সময় মা ও নবজাতকের মৃত্যুতে পশু চিকিৎসক গ্রেপ্তার

সুব্রত সুমন, নেত্রকোনা
প্রকাশ: ০৬ মে ২০২২ ২০:২৮:০১ আপডেট: ০৬ মে ২০২২ ২০:৫৩:৩১
প্রসবের সময় মা ও নবজাতকের মৃত্যুতে পশু চিকিৎসক গ্রেপ্তার

নেত্রকোনার বারহাট্টায় পশু চিকিৎসকের অস্ত্রোপচারে প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। প্রসূতির স্বামী ওই চিকিৎসকের নামে মামলা করার পর তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

গেলো বুধবার বারহাট্টা উপজেলার চন্দ্রপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে মা ও নবজাতকের দাফন সম্পন্ন হয়।

এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। 

মারা যাওয়া প্রসূতির নাম শরীফা আক্তার (১৯)। মঙ্গলবার রাত থেকে তার প্রসবব্যথা শুরু হয়। পরের দিন সকালে পাশের গ্রামের পশু চিকিৎসক আবুল কাশেমকে খবর দেয়া হয়। 

পরে আবুল কাশেম শরীফার সন্তান প্রসব করানোর সময় এপিওসটমি (আংশিক কেটে) করেন। এ সময় ভূমিষ্ঠ হওয়া নবজাতক কিছুক্ষণের মধ্যেই মারা যান। 

একইসঙ্গে প্রসব পরবর্তী অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে শরীফার মৃত্যু হয়। মুহূর্তে ঘটনা ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নজরে আসে প্রশাসনের। 

অভিযুক্ত পশু চিকিৎসক আবুল কাশেম দাবি করেন তিনি প্রসূতির সন্তান প্রসব করাতে চাননি। পরিবারের সদস্যরাই তাকে জোর করে এই কাজ করিয়েছে। 

এপিওসটমি করার পর ওষুধ ও সেলাই আনতে পাঠানো হয়েছিলো। কিন্তু আনতে দেরি হওয়ার অতিরিক্ত রক্তপাতে এ ঘটনা ঘটেছে।

আরও পড়ুন: জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ছোট তিন ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

তিনি আরও জানান, পশু চিকিৎসার পাশাপাশি মানুষের চিকিৎসার কোর্স তিনি সম্পন্ন করেছেন। তার সনদও রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

এরমধ্যেই তদন্ত কমিটি হয়েছে জানান উপজেলা সহকারী কমিশনার। আর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আশ্বাস দেন, দোষী ব্যক্তিকে শাস্তির আওতায় আনা হবে। 

নেত্রকোনার বারহাট্টার সিংধা ইউনিয়নের চন্দ্রপুর গ্রামের শরীফা আক্তারের সাথে এক বছর আগে বিয়ে হয় একই এলাকার মোহসীন মিয়ার।


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

১০ দিন ৯ ঘন্টা আগে