ঢাকা ০৪ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯

শিকলে বেঁধে নির্যাতনের পর নিখোঁজ ভুক্তভোগী কিশোর

গলাচিপা সংবাদদাতা, পটুয়াখালী
প্রকাশ: ১৩ মে ২০২২ ১৭:১৩:৩২ আপডেট: ১৩ মে ২০২২ ১৮:৩৭:১২
শিকলে বেঁধে নির্যাতনের পর নিখোঁজ ভুক্তভোগী কিশোর

পটুয়াখালীর গলাচিপায় চুরি অভি‌যো‌গে এক কিশোরকে শিকলে বেঁধে নির্যাতনের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক মাধ্যমে। এদিকে নির্যাতনের পর থেকে ওই কিশোরের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। গত ৯ এপ্রিল গলাচিপা সদর ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটে। 

ভিডিওতে দেখা যায়, কিশোর মুন্নাকে একটি গাছের সাথে লোহার শিকলে বেঁধে বোয়ালিয়া রাড়ি বাড়ির হজরত আলী নামে এক ব্যক্তি বেধরক মারধর করছে। এসময় আশপাশে দাড়িয়ে এই নির্যাতনের দৃশ্য দেখছে ওই বাড়ির লোকজন। ঘটনাকালে কিশোরকে উদ্ধারের বদলে অনেককে ভিডিও করতেও দেখা গেছে। মারধরে মুন্নার শরীরে রক্তাত জখম হতেও দেখা গেছে। 

মুন্নার পরিবারের অভিযোগ গত ৯ মে থেকে ১১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত দফায় দফায় মুন্নার উপর এ অমনাবিক নির্যাতন চালানো হয়। তবে ১১ এপ্রিল রাতের পর থেকে ওই কিশোরকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। 

মুন্নার সৎ মা হাসিনা বেগম বলেন, আমরা ঢাকায় থাকি, মুন্না বাড়িতে থাকতো। নির্যাতনের খবর পেয়ে তার বাড়িতে এসেছেন। তার ছেলেকে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়। তাকে দফায় দফায় তিনদিন হজরত আলী, ফেরদৌস, মমতাজ এবং তানিয়া অমানবিন নির্যাতন করে। এর পর থেকে আমার ছেলেকে খুঁজে পাচ্ছি না।

অভিযুক্ত হযরত আলীর মোবাইল বন্ধ থাকায় এবং গাঢাকা দেয়ায় তার বক্তব‌্য পাওয়া যায়‌নি। 

এ বিষয়ে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এম, আর, সওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, আমরা অভিযোগ পেয়েছি, এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

পটুয়াখালীর পু‌লিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হ‌লে তি‌নি জানান, বিষয়‌টি গুরুত্ব সহকা‌রে দেখা হ‌চ্ছে।


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

২ দিন ২ ঘন্টা আগে