ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

অচেতন করে স্বামীকে হত্যা, স্ত্রী ও তার প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিরাজগঞ্জ
প্রকাশ: ১৭ মে ২০২২ ১৮:৩৯:৪৩
অচেতন করে স্বামীকে হত্যা, স্ত্রী ও তার প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

সিরাজগঞ্জে পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যায় স্ত্রী ও তার প্রেমিককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে দণ্ডিতদের ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে) সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ ফজলে খোদা মো. নাজির আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিতরা হলেন- মোছা. মুক্তি খাতুন (২২) ও তার প্রেমিক মো. সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিন (২৩)।

এর আগে ২০১৯ সালের ৩ জুন স্বামী মনিরুল হককে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে গলাটিপে তাকে হত্যা করেন মুক্তি ও সাইদুল। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, হত্যার দুই মাস আগে জেলার শাহজাদপুর উপজেলার মুক্তি খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার বাড়াবিল উত্তরপাড়া গ্রামের মনিরুল হকের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ে আগে ও পরেও তুহিনের সঙ্গে মুক্তির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। স্বামী মনিরুলকে তাদের বাধা মনে করেই হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২০১৯ সালের তিন জুন মুক্তি খাতুন স্বামীকে নিয়ে দাদার বাড়ি শক্তিপুর গ্রামে বেড়াতে যান। রাতে মনিরুলকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করেন মুক্তি। পরে তুহিন রাত ১২টার পরে মুক্তির ঘরে ঢুকে দুজনে মিলে মনিরুলকে গলাটিপে হত্যা করে।

আরও পড়ুন: গোপন বৈঠক থেকে জামায়াতের ৪৯ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

এ ঘটনায় মনিরুলের বাবা বাদি হয়ে শাহজাদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মোট ১১ জনের সাক্ষ্যর পর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠান। 

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিপি আব্দুর রহমান ও আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাড মো: আব্দুর রাজ্জাক (আতা)।


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৪ দিন ১৪ ঘন্টা আগে