ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

বাংলাদেশে এক চতুর্থাংশ মানুষ উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন

সুশান্ত সিনহা, একাত্তর
প্রকাশ: ১৮ মে ২০২২ ১৩:৪৭:২৯
বাংলাদেশে এক চতুর্থাংশ মানুষ উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন

বাংলাদেশের প্রতি পাঁচজনে একজন, আর শতাংশের হিসাবে প্রতি একশ’ জনের মধ্যে ২১ জন  প্রাপ্তবয়স্ক মানুষই উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশনে ভুগছেন। 

নীরব ঘাতক বলে পরিচিত এই রোগের কোন উপশম নেই। তাই আক্রান্তরা বেশিরভাগ রোগটি সম্পর্কে জানেন না। আবার উচ্চ রক্তচাপ নিয়ে মানুষের মধ্যে নানা ধরণের ভুল ধারণা আছে।

চিকিৎসকরা বলছেন, বেশি লবণযুক্ত খাবার, সিগারেট ও তামাক সেবন এবং শারীরিক পরিশ্রম না করায় হুহু করে বাড়ছে উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্তদের সংখ্যা। 

মানুষের শরীরের রক্ত চালাচলের চাপ স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে অনেক বেড়ে গেলে তাকে বলে হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপ।

দেশের প্রতিটি ঘরেই মিলবে উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত মানুষ। পরিসংখ্যান বলছে, দেশে প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের ২১ শতাংশই উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত। 

অধিকাংশ সময় উচ্চ রক্তচাপের নির্দিষ্ট কোন লক্ষণ ও উপসর্গ থাকে না। তাই এই নীরব ঘাতকে আক্রান্তদের বেশিরভাগই রোগটি সম্পর্কে জানেন না। 


ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যাপক খন্দকার আব্দুল আওয়াল রিজভী জানান, দেশে উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্তদের সংখ্যা। 

তিনি জানান, বেশিরভাগ মানুষ নিজেরা হাইপারটেনশনে ভুগছেন সে সম্পর্কে জানেন না। তার ফলে হার্ট অ্যাটাক বা হার্ট ফেইলিওরের মত বড় ধরণের কোন অসুস্থতায় আক্রান্ত হন, যার পরিণতিতে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

কিন্তু নিয়মিত রক্তচাপ পরীক্ষা এবং চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চললে এ নীরব ঘাতকের হাত থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব বলেও মন্তব্য করেন অধ্যাপক রিজভী। 

হার্ট ফাউন্ডেশনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৫ থেকে এপ্রিল ২০২২ পর্যন্ত হার্টের রিং বসানো হয়েছে সাড়ে ২২ হাজার রোগীর। যাদের ৭৬ শতাংশই উচ্চ রক্তচাপ ভুগতো।

আরও পড়ুন: নিত্যপণ্যে দাম বাড়ার প্রভাব পড়ছে হোটেল রেস্তোরাঁর খাবারেও

হার্টের ধমনীতে মোট রিং বসানোদের মধ্যে সাড়ে ১১ হাজার বা অর্ধেকের বেশি রোগী ধূমপান ও জর্দাসহ তামাক সেবনকারী।  

চিকিৎসকরা বলছেন, খাদ্যসহ দৈন্যদিন অভ্যাসের পরিবর্তন করা গেলে উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি থেকে মুক্ত থাকা যায়। তারা বলছেন, শরীরে রক্তচাপের মাত্রা ১৪০ বাই ৯০ এর বেশি হলেই বুঝতে হবে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে।  


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৫ দিন ১ ঘন্টা আগে