ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

ফেরিতে জুয়া খেলায় চার জনকে জেলসাজা

নিজস্ব প্রতিনিধি,রাজবাড়ী
প্রকাশ: ২১ মে ২০২২ ২০:২৯:২৪ আপডেট: ২১ মে ২০২২ ২১:১০:২৯
ফেরিতে জুয়া খেলায় চার জনকে জেলসাজা

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের চলাচলরত ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা ফের সক্রিয় হয়ে পড়ছেন- এমন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার (২০ মে) দিবাগত মধ্যরাতে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া রো রো ফেরি কেরামত আলী মাঝ নদীতে পৌছলে যাত্রীবেশে থাকা নৌপুলিশ চার জুয়াড়িকে আটক করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া সিদ্দিক কাজী পাড়া এলাকার মৃত মোবারক মোল্লার ছেলে বরকত মোল্লা (৪২), উত্তর দৌলতদিয়া ঢল্লা পাড়া এলাকার মৃত নবু খাঁর ছেলে নুরু খাঁ (৫৩), বাহির চর দৌলতদিয়া শাহাদৎ মেম্বার পাড়া এলাকার অকেল মোল্লার ছেলে উসমান মোল্লা (৫৪) ও একই গ্রামের মোহাম্মদ হোসেন এর ছেলে সাগর হোসেন (৩৭)। 

আটকদের ভাষ্যমতে একই গ্রামের মৃত মোহন শিকদারের ছেলে রেজাউল শিকদার (৩০) ছিলেন। তবে পুলিশের উপস্থিতি  টের পেয়ে আগেই পালিয়ে যান।

এসময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে তাস, কুপি/ বাতি, তাস জুয়া খেলার একটি বোর্ড, ও নগদ ৫০০ টাকা জব্দ করে। তাদের প্রত্যেককে শনিবার ( ২১মে ) দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আজিজুল হক খান।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই দীর্ঘদিন ধরে নেশা বা জুয়ার সাথে জড়িত।

দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (ওসি) সৈয়দ জাকির হোসেন বলেন, শুক্রবার রাতে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে রাত পৌনে বারোটার দিকে কেরামত আলী রোরো ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা উঠছে গোপন সংবাদের মাধ্যমে খবর পেয়ে যাত্রী বেশে কয়েকজন অবস্থান নেই। ফেরিটি ছাড়ার কিছুদূর যেতেই কুপি বাতি জালিয়ে জুয়া খেলা শুরু করলে হাতেনাতে চারজনকে আটক করি। পরে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলো বিচারক প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন।


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৪ দিন ২৩ ঘন্টা আগে