ঢাকা ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

শর্তসাপেক্ষে গণপরিবহন খোলার চিন্তা করছে সরকার- কাদের

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০২১ ১৫:১৩:০০ আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০২১ ১৪:৫৫:৩৪

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, চলমান লকডাউনের পর জনস্বার্থ বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকার শর্তসাপেক্ষে গণপরিবহন চালুর চিন্তাভাবনা করছে।

তবে লকডাউন শিথিল হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, 'গণপরিবহনে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে হবে।'

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে আজ শনিবার (২৪ এপ্রিল) সকালে বরিশাল সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ’র কর্মকর্তাদের সাথে এক ভার্চুয়াল মতবিনিময় সভায় এসব কথা জানান। 

গণপরিবহনে ইতিপূর্বে অর্ধেক আসন খালি রেখে যে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছিল আগামিতেও তা অব্যাহত থাকবে। তবে কেউ নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত নিলে তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনা হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

সভায় সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ফরিদপুর-ভাঙ্গা-বরিশাল সড়কটি চার লেনে উন্নিত করণের বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

বিআরটিসি ও বিআরটিএ’কে দলাল চক্র থেকে মুক্ত রাখার কঠোর আহ্বান জানান তিনি।

গুজব প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি:

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এসময় আরও বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে দেশে-বিদেশে যে মিথ্যা প্রচার চালানো হচ্ছে, তার অর্থের যোগানদাতা ও পৃষ্ঠপোষক হচ্ছেন দেশের একটি রাজনৈতিক দল।

অপপ্রচার আর গুজবের জন্য যাদেরকে শাস্তির আওতায় আনা হয়, তাদের ব্যপারে বিরোধীদল ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিরুপ সমালোচনা করে থাকে উল্লেখ করে সরকারের এই মন্ত্রী বলেন, সাইবার ক্রাইম ও ডিজিটাল নিরাপত্তা সরকারের এ্যাকশানের বাইরে থাকবে, এটা মনে করার কোনো কারণ নেই। জনগণকেই ডিজিটাল নিরাপত্তা দিতে হবে, গুজব আর অপপ্রচার নিরাপত্তাকে মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত করে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের প্রশ্ন রেখে বলেন, প্রতিদিন বিরোধীদল সরকারের বিরুদ্ধে যা নয় তাই বলে, প্রধানমন্ত্রীকেও ছাড়ছেন না অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করতে, কিন্তু সেখানে কারো বিরুদ্ধে কি এসব বক্তব্যের কোনো প্রকার হয়রানি বা গ্রেফতার করা হচ্ছে?

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন