ঢাকা ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯

দেশে এখনও মাঙ্কিপক্স রোগী ধরা পড়েনি: বিএসএমএমইউ ভিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২৪ মে ২০২২ ১২:৪৪:২৮ আপডেট: ২৪ মে ২০২২ ১৪:২৬:১৩
দেশে এখনও মাঙ্কিপক্স রোগী ধরা পড়েনি: বিএসএমএমইউ ভিসি

বাংলাদেশে এখনও মাঙ্কিপক্সের রোগী ধরা পড়েনি বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ। 

মঙ্গলবার (২৪ মে) বিএসএমএমইউর সি ব্লকের ডা. মিল্টন হলে মাঙ্কিপক্স নিয়ে আয়োজিত জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

গুজবে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, আমরা মাঙ্কিপক্স ভাইরাস মোকাবিলায় প্রস্তুত আছি। একই সঙ্গে দেশের মানুষকে যে কোনো ধরনের গুজব বা আতঙ্ক এড়িয়ে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে চলতে হবে।

ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, গুটিবসন্তের টিকা মাঙ্কিপক্স থেকে ৮৫ শতাংশ সুরক্ষা দেয়। দুই সপ্তাহের মধ্যে অথবা সম্ভব হলে চারদিনের মধ্যে এই টিকা ব্যবহার করতে হবে।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য বলেন, এই ভাইরাসের ইনকিউবেশন পিরিয়ড গড়ে ১২ দিন, ৪ থেকে ২১ দিন পর্যন্ত। প্রড্রোম ১ থেকে ১০ দিন স্থায়ী হয়। জ্বরজনিত অসুখের সঙ্গে ঠান্ডা লাগা, ঘাম, প্রচণ্ড মাথাব্যথা, পিঠে ব্যথা, ক্ষুধামন্দা, ফ্যারিঞ্জাইটিস, শ্বাসকষ্ট এবং কাশি হয়ে থাকে।

আরও পড়ুন: গর্ভের সন্তান নষ্টে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীকে বালিশ চেপে হত্যা

মাঙ্কিপক্স একটি ডিএনএ ভাইরাস জানিয়ে তিনি বলেন, এটি একটি জুনোটিক ভাইরাস যার প্রাথমিক সংক্রমণ সংক্রমিত প্রাণির সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে বা সম্ভবত তাদের অপর্যাপ্তভাবে রান্না করা মাংস খাওয়ার মাধ্যমে ঘটে বলে বিশ্বাস করা হয়। উদাহরণ-জংলী কুকুর, ইঁদুর, খরগোশ, কাঠবিড়ালি, বানর, সজারু ইত্যাদি। 

সম্মেলনে বিএসএমএমইউর অধ্যাপক ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

২ দিন ১ ঘন্টা আগে