ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

বড় দেশগুলোর স্বার্থের খেলা বন্ধ করতে চায় ডব্লিউটিও

কাবেরী মৈত্রেয়, জেনেভা থেকে
প্রকাশ: ১৫ জুন ২০২২ ১৫:১৫:০৬ আপডেট: ১৫ জুন ২০২২ ১৫:১৫:২৪
বড় দেশগুলোর স্বার্থের খেলা বন্ধ করতে চায় ডব্লিউটিও

বড় দেশগুলোর স্বার্থের খেলা বন্ধ করতে চান ডব্লিউটিও মহাপরিচালক এনগোজি আইওয়ালা। তার আশা, অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতার বদলে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা হবে দেন-দরবারের প্ল্যাটফর্ম।

১২তম মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক সফল হবে কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে এনগোজি বলেছেন, সদস্য দেশের ঐক্যমত্যে এবার একাধিক বড় সিদ্ধান্ত আসছে।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা ডব্লিউটিওর মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের তৃতীয় দিনের শুরুটা হয় সমুদ্রে মাছ আহরণ কার্যক্রমে ভর্তুকির তহবিল ব্যবস্থাপনা বিষয়ে।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় সংস্থার মহাপরিচালক এনগোজি আইওয়ালা জানান, এক ধরনের অচল অবস্থা থেকে বের হচ্ছে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা। সম্মেলন ফলপ্রসূ হবে আশাবাদী তিনি।

এছাড়া মঙ্গলবারের (১৪ জুন) সেশনগুলোতেও উন্নত বিশ্ব ও এলডিসিভুক্ত দেশের প্রতি ডব্লিউটিওর ভূমিকা নিয়ে নানা বিতর্ক হয়েছে।

অধিকাংশ সদস্য দেশ বলছে, ডব্লিউটিও সব সময় উন্নত বিশ্বের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে আসছে। অন্য দিকে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর বাণিজ্য বিষয়ক স্বার্থকে সেভাবে গুরুত্ব দেয়া হয় না।

বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উঠতে যাচ্ছে। এ সম্মেলন থেকে এসব দেশের বড় চাওয়া বড় দেশগুলো থেকে বাণিজ্য ও বিনিয়োগে বিদ্যমান সুবিধাগুলো আরো কয়েক বছর বহাল রাখা। বিভিন্ন দেশের বাণিজ্যমন্ত্রীরা এ সংক্রান্ত মতামত তুলে ধরেন।

সম্মেলনে অংশ নেয়া বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল প্রত্যাশা, শেষ মুহূর্তে তা তাদের দাবিগুলো আদায় করতে সমর্থ হবেন তারা। যদি না কোন শক্তিশালী দেশ বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ডব্লিউটিও সেলের মহাপরিচালক হাফিজুর রহমান বলেন, চূড়ান্ত ঘোষণায় সুবিধা পাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ থাকলেও সেটা কম অর্জন হবে না।

আরও পড়ুন: ধানমন্ডিতে অভিযান, রেস্তরার ফ্রিজে মিললো পচা-বাসি খাবার

সম্মেলনের শেষ দিন ১৫ জুন। চলছে উন্নত-স্বল্পোন্নত দেশগুলোর মধ্যে নানাভাবে দর কষাকষি। যদিও অনেক বিষয়েই এখনো ঐকমত্য হয়নি। তবে শেষ দিনেই আসছে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৪ দিন ২৩ ঘন্টা আগে