ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি, পাবনা
প্রকাশ: ১৮ জুন ২০২২ ১৫:৫২:১৪ আপডেট: ১৮ জুন ২০২২ ১৬:১৯:২৬
শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক

পাবনার চাটমোহরে প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক করা হয়েছে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী এক কিশোরকে। তবে ধর্ষণের পর তিনদিন অতিবাহিত হলেও এখনো শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন না করে পুলিশ সময়ক্ষেপণ করছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীর পরিবারের। 

গত বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটার পর ভুক্তভোগীর বাবা নিজে বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এই ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোরকে আটকের পর সে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। 

পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এদিকে ঘটনার রাতেই ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে পাবনা সদরের ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়। তবে ধর্ষণের পর ৭২ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা এখনো সম্পন্ন হয়নি বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রফিককে বহুবার অনুরোধের পরেও তিনি কর্ণপাত করেননি। এই ধর্ষণ মামলায় তিনি নিজে হাসপাতালে না এসে বাদীর কাছে এজাহারের কপি দিয়ে পাঠিয়ে দেন হাসপাতালে। 

কিন্তু আইনি জটিলতায় ও চিকিৎসক না থাকায় ওয়ান-স্টপের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে পারেনি। হাসপাতালের শয্যায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে শিশুটিকে ভর্তি রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: অবৈধভাবে পাহাড়ে বাসকারীদের উচ্ছেদের নির্দেশ

ধর্ষণের ঘটনার বিষয়ে পরিবারের দেয়া তথ্যমতে, ১৫ জুন বিকালে শিশুটি বাড়ির বাইরে খেলছিলো। এসময় প্রতিবেশি কিশোর তাকে কৌশলে নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। 

এই ঘটনায় পাবনা চাটমোহর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অভিযুক্ত ওই কিশোরের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে। 

তবে এসআই রফিক জানান, অভিযোগ পাওয়ার পরপরই মামলা রেকর্ড করা হয়েছে এবং যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। 


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৪ দিন ২৩ ঘন্টা আগে