ঢাকা ১২ আগষ্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

কেউ না খেয়ে থাকবে না, যতদিন পানি ততদিন সহায়তা: প্রধানমন্ত্রী

ফারজানা রূপা, একাত্তর
প্রকাশ: ২১ জুন ২০২২ ১২:৫৪:৪০ আপডেট: ২১ জুন ২০২২ ১৬:০০:২৫
কেউ না খেয়ে থাকবে না, যতদিন পানি ততদিন সহায়তা: প্রধানমন্ত্রী

বন্যা মোকাবিলায় সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বন্যায় কারণে একজন মানুষও না খেয়ে থাকবেনা। যতোদিন পানি থাকবে, ততোদিন খাদ্য সহায়তা চলবে। পানি নেনে যাওয়ার পর রোগ বালাই মোকাবেলায় মেডিক্যাল টিম কাজ করবে। যাদের ফসল নষ্ট হয়েছে তারা জুলাই মাসেই বীজ সহায়তা পাবেন। 

মঙ্গলবার (২১ জুন) সিলেট সার্কিট হাউজে জেলা প্রশাসনের কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বন্যায় দুশ্চিন্তার কিছু নেই উল্লেখ প্রধানমন্ত্রী বলেন, সিলেট অঞ্চলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সহায়তা দেওয়া হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের যত খাদ্য ও ওষুধ লাগে সব দেওয়া হবে। বন্যায় মাছচাষীরা যাতে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারেন সেজন্য ব্যবস্থা নেবে সরকার। 

এ সময় বন্যা দুর্গতদের সহায়তায় কাজ করা বিভিন্ন বাহিনী, প্রশাসনসহ সকলের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বন্যায় যারা কাজ করছেন তাদেরও সাবধান ও সতর্ক থাকতে হবে। বন্যার পানিতে যাতে ঠাণ্ডা লেগে কেউ অসুস্থ না হন।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ও বিরোধী দল সব অবস্থাতেই সবার আগে দুর্গত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে যায়।

শেষে প্রধানমন্ত্রী সামরিক বাহিনী, প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য ধন্যবাদ জানান।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে হেলিকপ্টারযোগে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। পরে সেখান থেকে সিলেট সার্কিট হাউজে যান।

সিলেট সার্কিট হাউজে প্রধানমন্ত্রী বন্যা পরিস্থিতি পর্যালোচনা ও বন্যাদুর্গতদের পুনর্বাসন বিষয়ে এক ‘মতবিনিময় সভায়’ অংশ নেন। সভায় প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত রয়েছেন।

আরও পড়ুন: পথ দেখানোর প্রত্যয়ে ১১ বছরে পা রাখলো একাত্তর টেলিভিশন

এর আগে নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ ও সিলেট জেলার বন্যা পরিস্থিতি পরিদর্শন করতে সকাল আটটায় তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে রওনা হন তিনি।


একাত্তর/এসি


মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

১ মাস ১০ দিন আগে