ঢাকা ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

প্রথম ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রেসিডেন্ট পেতে যাচ্ছে ভারত

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২২ জুন ২০২২ ১৮:৫১:৩৮ আপডেট: ২২ জুন ২০২২ ১৮:৫৫:১৬
প্রথম ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রেসিডেন্ট পেতে যাচ্ছে ভারত

ভারতের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দ্রৌপদী মুর্মুকে মনোনয়ন দিয়েছে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি। নির্বাচিত হলে তিনিই হবেন ভারতের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রথম প্রেসিডেন্ট। 

মঙ্গলবার (২১ জুন) বিজেপির সংসদীয় বোর্ডের এক বৈঠকের পর দলের সভাপতি জেপি নদ্দা জানান, সম্ভাব্য ২০ নামের তালিকা থেকে দ্রৌপদী মুর্মুকে প্রেসিডেন্ট পদের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। 

দ্রৌপদী মুর্মু জানান, টেলিভিশনে নিজের মনোনয়নের খবর শোনার পর তিনি 'বিস্মিত' ও 'আনন্দিত'। 

'দুর্গম ময়ুরভঞ্জ জেলার একজন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর নারী হিসেবে আমি শীর্ষ পদের জন্য মনোনীত হওয়ার কথা চিন্তা করিনি', বলেন তিনি। 

দ্রৌপদী মুর্মু একজন সাবেক শিক্ষক, যিনি ২০১৫ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ঝাড়খন্ডের গভর্নরের দায়িত্ব পালন করেছেন। 

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, নিজেদের মনোনীত প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করার সক্ষমতা বিজেপির রয়েছে।

এক টুইটবার্তায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, দ্রৌপদী মুর্মু একজন অসাধারণ প্রেসিডেন্ট হবেন সে বিষয়ে তিনি দৃঢ় বিশ্বাসী। 

৬৪ বছর বয়সী মুর্মুর বাড়ি উড়িষ্যায়। তিনি ঝাড়খন্ডের প্রথম নারী গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

আরও পড়ুন: কানাডীয় এমপিদের নিরাপত্তায় 'প্যানিক বাটন' 

১৯৫৮ সালে সাঁওতাল পরিবারে জন্ম নেয়া মুর্মু প্রতিকূলতার সাথে লড়াই করে তার শিক্ষাজীবন শেষ করেন এবং শ্রী অরবিন্দ শিক্ষা কেন্দ্রে একজন শিক্ষক হিসেবে তার পেশাগত জীবন শুরু করেন।

আগামী ১৮ জুলাই অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ভারতের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মুর্মুর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হবেন সাবেক বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহা। 

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ভারতের আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রপ্রধান হলেও, তিনি নির্বাহী ক্ষমতার অধিকারী নন। 


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন