ঢাকা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

অভিযোগই নেই অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার
প্রকাশ: ০৫ জুন ২০২১ ১৯:১৪:২৯ আপডেট: ০৭ জুন ২০২১ ২২:৫৩:৫২
অভিযোগই নেই অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থায়

বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা আব্দুল হালিম বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ঢাকা সার্কেলের সাভার সাব অফিসে একটি মোটরসাইকেলের লাইসেন্স করার জন্য এসেছেন। তিনি চার কর্ম দিবসে ঘুরেও পড়েন ভোগান্তিতে। পরে দালালের মাধ্যমে কাজ সারেন। তিনি অভিযোগ জানাতে চান যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে।

পরে আব্দুল হালিম জানতে পারেন, হাতে থাকা একটি স্মার্ট ফোন দিয়ে যে কোনো অভিযোগ ঘরে বসেই করা যায়। অনলাইনে অভিযোগ প্রতিকারের প্লাটফর্ম রয়েছে। সরকারের এই ব্যবস্থাপনার বিষয়টি জেনে আনন্দিত তিনি।

এ বিষয়ে সাভার বিএআরটিএ সাব অফিসের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) সুব্রত কুমার দেবনাথের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলে জানা যায়, বিষয়টি তিনি একেবারেই জানেন না। অনলাইনে অভিযোগ প্রতিকারের ব্যবস্থা বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি মোবাইল রেখে দেন।

এদিকে ধামরাই প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহীনুজ্জামান জানান, অনলাইনে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থার সেবা ইতিবাচক গ্রহণ করার বিষয়ে প্রায় ২ বছরে এই কর্মস্থলে থাকার মধ্যে কোনো অভিযোগ তিনি পাননি।  

তিনি বলেন, নাগরিকরা যদি অভিযোগ না করে তাহলে কী করার আছে!

অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা (জিআরএস) ওয়েব সাইটে অনিক/আপিল কর্মকর্তার তথ্যে সেবা প্রাপ্তিতে অসন্তুষ্ট হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করে আপনার সমস্যা অবহিত করার জন্য ওয়েব পোর্টালে ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক ) মো. মমিন উদ্দিনের নাম রয়েছে ।  

জেলা প্রশাসনের তথ্য ও অভিযোগ শাখায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অনলাইনে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা প্লাটফর্মে একটিও অভিযোগ নেই।

কেন্দ্রীয় অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থার অনলাইন প্লাটফর্ম হলো, সরকারি দপ্তর/সংস্থার প্রতিশ্রুত সেবা, সেবা প্রদান পদ্ধতি এবং সেবা অথবা পণ্যের মান সম্পর্কে আপনার অসন্তোষ বা মতামত এই জিআরএস www.grs.gov.bd ওয়েব সাইটের মাধ্যমে জানাতে পারেন। অভিযোগ দাখিলের পর এসএমএস ও ইমেইলের মাধ্যমে অভিযোগ প্রতিকারের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানানো হবে। এছাড়া লগইন করেও হালনাগাদ তথ্য জানা যাবে। তবে অজ্ঞাতনামা হিসেবে অভিযোগ সম্পর্কে পরবর্তী কোন তথ্য পাওয়া যাবে না।

সাভারের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মিম আক্তার মনে করেন, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে কাজকে সহজ, দ্রুত এবং স্বচ্ছ করাই হলো ডিজিটালাইজেশন ।

আরও পড়ুন: র‌্যাব প্রধানের মুখে টিকটক লাইকিসহ বিতর্কিত অ্যাপ বন্ধের আভাস

আরেকটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইফতেখার জামানের মতে, ডিজিটাল বাংলাদেশের এ উদ্যোগ অন্যতম। তার ব্যাখ্যায় ডিজিটাল বাংলাদেশ মানে হচ্ছে, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে এমন এক ব্যবস্থা, যেখানে সুশাসন থাকবে, সরকারের কার্যক্রমে দায়বদ্ধতা, স্বচ্ছতা থাকবে, দুর্নীতি কমবে।

অনলাইনে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে ধামরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল হক বলেন, এই ব্যবস্থাটি এমন, যার মাধ্যমে দেশের নাগরিকরা অনলাইনে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঘরে বসেই প্রাত্যহিক কাজ-কর্ম করতে পারবেন৷

অভিযোগ প্রতিকার অনলাইন সেবা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নাগরিকদের সদিচ্ছার অভাব, প্রচার প্রচারণার ঘাটতি রয়েছে।

ধামরাই পৌরসভার মেয়র গোলাম কবির বলেন, সেবা প্রাপ্তিতে ওয়েব পোর্টালে এতো সহজ সুযোগ ও সমাধানের পথ সবার গ্রহণ করা দরকার। সরকারের ডিজিটাল সেবায় একটি পোর্টালে গেলে সব সেবার লিংক পাওয়া যায়। সেখান থেকে আপনি অন্য যে কোন লিংকে যেতে পারছেন। সরকারের এই উদ্যোগ আগামীতে জনগণ আরও সুফল পাবেন বলে আশাবাদ এই জনপ্রতিনিধির।

সাভার উপজেলার একজন কর্মজীবী আদনান শফির মতে, সরাসরি অভিযোগ দিয়েই ব্যবস্থা হয় না, আবার অনলাইন প্রতিকার!

উপজেলার বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা জানান, সবার বোঝা দরকার, এ সেবা একটা নির্দিষ্ট সময়ে সমাধান করা হয়। আপিল করার সুযোগসহ ঘরে বসে হয়রানি মুক্ত যাতায়াত খরচ ছাড়া ভুক্তভোগীর সময় ব্যয় হয় না।  

আশুলিয়ার অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা আবুল হাসেম বলেন, অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে তার একটি সমস্যার অভিযোগ দিয়েছেন। যা নিষ্পত্তি হওয়ার পথে।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সচিব নারায়ণ চন্দ্র সরকার মুঠোফোনে  বলেন, সুশাসনের জন্য এটি এক বড়ো বিষয়। তবে অনলাইনে কমিশনে অভিযোগ আসছে। সমাধানও করা অব্যাহত রয়েছে। তিনি মনে করেন, অনলাইনে অনেকটা অভিজ্ঞ না থাকা বা কিভাবে করবেন তা বোঝার অভাবে হয়তো বা কিছুটা ঘাটতি থাকতে পারে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. সাব্বির আহমেদ বলেন, অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা অনলাইন প্লাটফর্ম বিষয়টি এখন আপনার কাছ থেকে শুনলাম। এ সেবা সফল করতে প্রচারের বিকল্প নেই।

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন