ঢাকা ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

চিলমারী নদী বন্দর নির্মাণ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০৮ জুন ২০২১ ১৮:০৩:৪৭ আপডেট: ০৮ জুন ২০২১ ২০:৩৪:৩৭
চিলমারী নদী বন্দর নির্মাণ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারীতে নদী বন্দর নির্মাণ প্রকল্পের অনুমোদন পাওয়া গেছে। আজ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) এর সভায় প্রকল্পটি বাস্তবায়নের অনুমোদন দেয়া হয়। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। এজন্য প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

প্রকল্পটির বাস্তবায়নকাল জানুয়ারি ২০২১ হতে জুন ২০২৩ পর্যন্ত। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে চিলমারী এলাকায় বছরে পরিবাহিত প্রায় ৩ দশমিক ২৫ লাখ যাত্রী ও ১ দশমিক ৫ লাখ টন মালামালের সুষ্ঠু ও নিরাপদ উঠা-নামা নিশ্চিত হবে। পাশাপাশি নৌ-বাণিজ্য ও অতিক্রমন প্রটোকলের আওতায় ভারতের আসাম এবং নেপাল ও ভুটানের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রবর্তনে অন্যতম কেন্দ্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা ২০১৬  সালের ৭ সেপ্টেম্বর চিলমারীকে নদী বন্দর হিসাবে ঘোষণা করেন এবং অন্যান্য নদী ও সমুদ্র বন্দরের সাথে একে সংযোগ করার বিষয়ে জোর দেন। সে অনুসারে ২০১৬ সালের ৮ ডিসেম্বর  এ সংক্রান্ত বাংলাদেশ গেজেট প্রকাশিত হয়।

প্রকল্পটির এলাকা হলো-কুড়িগ্রাম জেলার অন্তর্গত চিলমারী উপজেলার রমনা ও জোড়গাছ ঘাট এলাকা, রাজিবপুর উপজেলার রাজিবপুর ঘাট ও নয়ারহাট ঘাট এলাকা এবং রৌমারী উপজেলার রৌমারী ঘাট এলাকা।

প্রকল্পটির প্রধান উদ্দেশ্য হলো-রংপুর বিভাগের অপেক্ষাকৃত সুবিধাবঞ্চিত কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারি, রংপুর ও গাইবান্ধা জেলার কতিপয় এলাকার নৌপরিবহণ ব্যবস্থার উন্নয়নে চিলমারী এলাকায় বন্দর অবকাঠামো সুবিধাদি নির্মাণ।


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন