ঢাকা ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮

স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১১ জুন ২০২১ ১৬:২৯:৩৪ আপডেট: ১১ জুন ২০২১ ১৬:৩৮:৪৬
স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল

রাজধানীর এয়ারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া হার্ট ও কিডনি রোগে ভুগছেন। তিনি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (১১ জুন) সকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ম্যাডামের চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড করা হয়েছে। দেশে যারা বিশেষজ্ঞ আছেন, তাদের মধ্যে এরাই বেশ বড় মাপের বিশেষজ্ঞ। তাদের সর্বশেষ বক্তব্য, চেয়ারপার্সনের কোভিড–পরবর্তী যে জটিলতা দেখা দিয়েছিল, সেগুলো এখন মোটামুটি ভালো।

ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনের মূল যে সমস্যাগুলো হয়েছে, সেগুলো উদ্বেগজনক। খালেদা জিয়ার হার্টের সমস্যা আছে এবং কিডনির সমস্যা আছে। এটা নিয়ে চিকিৎসকেরা বেশ উদ্বিগ্ন আছেন।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা মনে করছেন, বাংলাদেশে যে হাসপাতাল, সেন্টারগুলো আছে, এগুলো যথেষ্ট নয় বিএনপির চেয়ারপার্সনের চিকিৎসার জন্য। খালেদা জিয়ার যে বয়স, অসুখ, সেই বিবেচনায় তার আরও উন্নত সেন্টারে যাওয়া দরকার এবং জরুরি।

ফখরুল আরও বলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব লায়ন আসলাম চৌধুরীকে গত পাঁচ বছর ধরে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় গ্রেপ্তার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। যখনই তিনি আদালত থেকে জামিন পান, তখনই পুরনো বানোয়াট মামলায় নতুন করে গ্রেপ্তার দেখিয়ে তার কারাবাস দীর্ঘায়িত করা হচ্ছে। এ ছাড়া চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জয়পুরহাট, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিএনপি এবং অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই গ্রেপ্তার, কারান্তরীণ করা হচ্ছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: শেখ হাসিনাকে গ্রেপ্তারে গণতান্ত্রিক অধিকার অবরুদ্ধ হয়েছিল

বিএনপির অন্যতম এ শীর্ষ নেতা জানান, ২৬ মার্চ ২০২১ থেকে এ পর্যন্ত বিএনপি এবং এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের প্রায় ২০০ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ফজলুর রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা মাসুদ আহমেদ তালকুদার, কায়সার কামাল উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ১০ এপ্রিল গুলশানের বাসা ফিরোজায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। করোনামুক্ত হন ৯ মে। এর আগে গত ২৭ এপ্রিল এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত ৩ মে শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে খালেদা জিয়াকে কেবিন থেকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।



একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন