ঢাকা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বালু-তুরাগে বড় জাহাজ চলাচলে বাধা নিচু সেতু!

হাবিব রহমান
প্রকাশ: ২০ জুন ২০২১ ২০:১৮:৪৪ আপডেট: ২১ জুন ২০২১ ১২:১৫:৪৯
বালু-তুরাগে বড় জাহাজ চলাচলে বাধা নিচু সেতু!

বালু ও তুরাগ নদীর উপর সাতটি কম উচ্চতার সেতুর কারণে বড় পণ্যবাহী জাহাজ চলাচল করতে পারে না। ফলে নদী উদ্ধার করেও অর্থনৈতিক সুফল মিলছে না।

কয়েকটি সেতুর দশাও বেহাল, যে কোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

পরিবেশবিদরা বলছেন, নদী উদ্ধারের নামে দখলদারদের বৈধতা দেয়া হচ্ছে।

ডেমরার বালু নদীর উপর চনপাড়া সেতুটি যে কোনো সময় ভেঙে যেতে পারে। নৌ-যানের আঘাতে তিনটি পিলার ক্ষতিগ্রস্ত। একটি পিলারের উপরের অংশ পুরো ভেঙে রড বেরিয়ে গেছে।

শুধু তাই নয়, সেতুর মুল কাঠামো থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে পিলারের অংশ। অন্য পিলারগুলোও বেহাল। দীর্ঘদিন ধরে সেতুর এই অবস্থা হলেও মেরামত করছে না কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: বন্ধ হলো ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান

ক্ষতিগ্রস্ত সেতুর ওপর দিয়েই প্রতিদিন চলাচল করছে শত শত যানবাহন। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এমন কম উচ্চতার ১৩টি সেতু রয়েছে রাজধানীর চারটি নদীর উপর। এর মধ্যে বালু আর তুরাগ নদের উপরেই আছে সাতটি সেতু। সবগুলোর অবস্থাই কমবেশি বেহাল।

নদী সচল রাখতে বিশাল খরচে দুই তীরে চলছে উচ্ছেদ অভিযান। এতে নদীর প্রস্থ বাড়লেও কম উচ্চতার সেতুর কারণে বড় পণ্যবাহী জাহাজ চলাচল করতে পারছে না।

আরও পড়ুন: আগামী জুনেই পদ্মা সেতুতে চলবে যানবাহন

নদী ও পরিবেশ কর্মীরা বলছেন, রাজধানীর চারপাশে উচ্ছেদ পরিচালনা করা হচ্ছে কোর্টের নির্দেশনা যথাযথ না মেনে।

এলোমেলো সীমানা পিলার বসালে দলখদাররাই বৈধতা পাবে। নদী রক্ষার উদ্যোগ ব্যর্থ হওয়ার পাশাপাশি নদীর সুষ্ঠু ব্যবহারও নিশ্চিত হবে না।

যদিও বিআইডব্লিউটিএ বলছে আদালতের নির্দেশনা মেনেই সবকিছু হচ্ছে। তবে কম উচ্চতার সেতুগুলো ভেঙে উচ্চতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত থাকলেও অজানা কারণে তা বাস্তবায়িত হচ্ছে না।



একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন