ঢাকা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

ইনস্ট্রাগ্রামে আয়ের শীর্ষে রোনালদো, বেশ পেছনে মেসি-নেইমার

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০২ জুলাই ২০২১ ১৭:৩৭:২১ আপডেট: ০৫ জুলাই ২০২১ ১০:৪৪:৪৯
ইনস্ট্রাগ্রামে আয়ের শীর্ষে রোনালদো, বেশ পেছনে মেসি-নেইমার

সিনেমা থেকে শুরু করে খেলার মাঠের তারকারা তাদের কর্মক্ষেত্র যেমন আয় করেন, অনেক সময় তার চাইতে অনেক বেশি আয় করেন বাইরে থেকে। এরমধ্যে বিজ্ঞাপন থেকে শুরু করে পৃষ্ঠপোষকতার বাইরেও নতুন ক্ষেত্র হিসেবে আছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

তারকা মানেই কোটি কোটি ভক্ত। তারা যাই করেন, সেটিই জানার জন্য উন্মুখ হয়ে থাকেন ভক্তরা। আর এই ঝোঁককে কাজে লাগিয়ে সামাজিক মাধ্যম থেকে লাখ লাখ ডলার আয় করে নিচ্ছেন তারকরা। পিছিয়ে নেই ফুটবল তারকারাও।

সামাজিক মাধ্যম থেকে আয়ের জন্য ফুটবল তারকাদের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হলো ইনস্টাগ্রাম ও টুইটার। এই দুই মাধ্যম থেকে রোনালদো-নেইমার-মেসিদের আয়ের পরিমাণ শুনলে মাথা ঘুরে যাবে তাদের লাখো-কোটি ভক্তকূলের।

ইনস্টাগ্রাম থেকে সবচেয়ে বেশি আয় করেন পর্তুগাল ও জুভেন্টাসের তারকা রোনালদো। নিজের অ্যাকাউন্টে একটি বিজ্ঞাপনের জন্য তিনি নেন প্রায় ১৬ লাখ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ, বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৪ কোটি টাকা। সেই সঙ্গে ইনস্ট্রাগ্রামও দেয় লাখ লাখ ডলার।

যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ফার্ম ‘হুপার এইচকিউ’ এসব তথ্য জানিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে গোটা বিশ্বে ইনস্টাগ্রামে সবচেয়ে বেশি অনুসারী রোনালদোর।

তার অনুসারীর সংখ্যা প্রায় ২৯ কোটি ৫৯ লাখ। ইনস্টাগ্রামের চোখে চলতি বছরে সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় রোনালদোই শীর্ষে। আর ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রাম মিলিয়ে প্রায় ৫৩ কোটি মানুষ তাকে অনুসরণ করেন।

অন্যদিকে, অনুসারীর সংখ্যা ও আয়ের দিক থেকে অনেকটাই পিছিয়ে আছেন বিশ্ব ফুটবলের অপর দুই মহাতারকা আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনার লিওনেল মেসি এবং ব্রাজিল ও পিএসজির নেইমার।

আরও পড়ুন: মহাশূন্যে যাচ্ছেন ৮২ বছর বয়সী নারী

সাত নম্বরে আছেন মেসি আর নেইমার রয়েছেন আরও দূরে ১৬ নম্বর স্থানে। ইনস্টাগ্রাম থেকে মেসির আয় প্রায় ১১ লাখ ৬৯ হাজার মার্কিন ডলার বা প্রায় ১০ কোটি টাকা। আর নেইমার আয় করেন ৮ লাখ ২৪ হাজার ডলার যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাত কোটি টাকা।

এই তারকারা সামাজিক মাধ্যম ছাড়াও আরও কোটি কোটি টাকা আয় করেন, কোনো পণ্যের দূত হয়ে। বিভিন্ন কোম্পানির পণ্য ব্যবহার করে। আর সেই সঙ্গে তো বিজ্ঞাপন তো আছেই। সব মিলিয়ে তাদের বার্ষিক আয়ের পরিমাণ আকাশচুম্বী। অবশ্য সেই কারণে, তাদের পেছনে সারাক্ষণই লেগে থাকে বিভিন্ন দেশের রাজস্ব কর্মকর্তারা।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন