ঢাকা ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

এই ঈদে সাদাসিধে রান্না

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০২১ ১৭:০৯:৩৮ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০২১ ১৭:১৭:২০
এই ঈদে সাদাসিধে রান্না

কোরবানির ঈদে তেল মসলাযুক্ত ভারী খাবার তো অনেক খাওয়া হয়। কিন্তু এবারের কোরবানির ঈদ একটু আলাদা। একদিকে গরম আবহাওয়া, অন্যদিকে করোনাকালে শরীর-মন সুস্থ রাখার তাগাদা। দুইয়ে মিলে এবার একটু হালকা খাবার খাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। 

এই সময়ে ভিন্ন স্বাদের এমন কিছু খাবারের রেসিপি দেখে নিন, যা একই সঙ্গে কম তেল মসলাযুক্ত কিন্তু সেই সঙ্গে স্পেশালও:

পুদিনা পোলাও 

পোলাও বা বিয়িয়ানি তো ঈদে হরহামেশাই খাওয়া হয়। কিন্তু তার পরিবর্তে সতেজ আর ফ্রেশ কোন কিছু ভাতের বিকল্প হিসেবে খেতে চাইলে তৈরি করা যেতে পারে পুদিনা পোলাও। পুদিনা পাতা গরমে শরবত বা জুসে যোগ করে তাজা আর ঠাণ্ডা সতেজতা। পোলাওতেও এটি এনে দেবে ভিন্ন চেহারা আর স্বাদ। 

পুদিনা পোলাওয়ের জন্য পুদিনা পাতার পেস্ট তৈরি করতে লাগবে: 

১ কাপ তাজা পুদিনা পাতা

৫/৬ টি কাঁচামরিচ 

৩/৪ টি রসুনের কোয়া

লবন স্বাদমতো  

এ সব উপকরণ অল্প পানি মিশিয়ে ব্লেন্ডারে দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। 

পোলাওয়ের জন্য উপকরণ

২ কাপ বাসমতি চাল, তবে সাধারণ পোলাওর চালও ব্যবহার করা যাবে

১ চা চামচ আস্ত জিরা

১/২ কাপ পেঁয়াজ কাটা 

১/৪ কাপ সয়াবিন তেল 

২/৩ টি শুকনো মরিচ

যেভাবে রান্না করবেন

প্রথমে গরম পানিতে চাল সেদ্ধ করে আলাদা করে রাখতে হবে। তবে চাল পুরোপুরি সেদ্ধ হবার কয়েক মিনিট আগেই নামাতে হবে, কেননা মসলার সাথে একে আবার কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে।

একটি কড়াইতে তেল গরম করে তাতে একে একে জিরা, পেঁয়াজ এবং শুকনো মরিচ দিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। এরপর এতে আগে তৈরি করা পুদিনার পেস্ট যোগ করে কিছুক্ষন অল্প আঁচে ভাজতে হবে। সবশেষে আগে সেদ্ধ করা ভাত দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে ফেলতে হবে। 

বেগুনের টকঝাল

এটি এমন একটি রেসিপি যা ভাত বা পোলাও দুটোর সাথেই খেতে ভালো লাগে। আবার এর উপকরণগুলোও খুবই সহজ। 

কি কি লাগবে

২টি বেগুন

১ চা চামচ জাফরান রঙ 

১ চা চামচ পাঁচ ফোড়ন 

১/২ কাপ পেঁয়াজ কুচি 

১ চা চামচ আদা বাটা 

১ চা চামচ রসুন বাটা

১ চা চামচ  টালা জিরার গুঁড়ো 

১ চা চামচ গরম মসলা 

১ কাপ তেঁতুলের মাড় 

১/২ কাপ চিনি 

৫/৬ টি কাঁচা মরিচ 

লবন ও তেল পরিমাণ মতো


যেভাবে রান্না করবেন

জাফরান রঙ ও লবন পানিতে গুলে তার মধ্যে ছোট কিউব করে কাটা বেগুন মেখে নিতে হবে। এরপর কড়াইতে তেল গরম করে উচ্চ আঁচে বেগুন ডুবো তেলে কড়া করে ভাজতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে উঠিয়ে তেল ঝরানোর জন্য টিস্যু পেপারের ওপর রাখতে হবে।

এরপর আলাদা একটি কড়াইয়ে বেগুন ভাজার তেল অল্প পরিমাণে নিতে হবে। গরম হয়ে গেলে তাতে পাঁচ ফোঁড়ন গুড়ো, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা রসুন বাটা ও লবন দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়তে হবে। এবার টেলে রাখা জিরার গুড়ো ও গরম মসলা দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে। কষানো হয়ে গেলে তাতে একে একে ভাজা বেগুন, তেতুলের মাড় আর চিনি যোগ করতে হবে। 

এরপর পাঁচ মিনিট উচ্চ আঁচে ঢেকে রান্না করতে হবে আর কিছুক্ষণ পরপর নেড়ে দিতে হবে। এভাবে ওপরে তেল উঠে আসলে বুঝতে হবে রান্না হয়ে গেছে। নামানোর আগে কাঁচা মরিচ ওপরে ছড়িয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে। 

ডাবের পুডিং

যেকোনো উৎসব মিষ্টি খাবার ছাড়া অসম্পূর্ণ। দেখতে দারুণ, খেতে মজাদার আর সেইসাথে সহজে তৈরি করা যায় এমন একটি মিষ্টি খাবার হলো ডাবের পুডিং। অল্প সময়ে মাত্র তিনটি উপাদান দিয়ে তৈরি ডাবের পুডিং গরমকালের জন্য একটি আদর্শ ডেজার্ট। এটি তৈরি করতে প্রয়োজন:

২/৩ টি তাজা ডাবের পানি 

১ কাপ কচি ডাবের শাঁস, পছন্দমত আকারে কাটা

১ টেবিল চামচ চিনি 

৫ গ্রাম চায়না গ্রাস, অথবা দেড় চা চামচ আগার আগার