ঢাকা ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

কুয়াকাটা বেড়াতে নিয়ে সৎ মেয়েকে ধর্ষণ

সংবাদদাতা, কলাপাড়া
প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০২১ ১৯:৪০:২৭ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০২১ ২১:৪২:৪৫
কুয়াকাটা বেড়াতে নিয়ে সৎ মেয়েকে ধর্ষণ

সৎ বাবার সাথে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সৈকতে ঘুরতে গিয়ে ঝাউবনে ধর্ষনের শিকার হয়েছে ১৬ বছরের কিশোরী। পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত ইউসুফ ফকিরকে গ্রেপ্তার করেছে। 

সোমবার দুপুরে নির্যাতনের শিকার কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং গ্রেপ্তার ইউসুফকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

কলাপাড়ার মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, প্রায় পাঁচ বছর আগে ওই কিশোরী মেয়ের মা দ্বিতীয় স্বামী হিসেবে ইউসুফ ফকিরকে বিয়ে করে কক্সবাজারে বসবাস করতেন। করোনা মহামারীর মধ্যে লকডাউনে তারা স্বামীর বাড়ি কুয়াকাটার মেলাপাড়ায় অবস্থান করছিল। গত ১৩ জুলাই ওই কিশোরী তার নানা বাড়ি আমতলী থেকে কুয়াকাটার মেলাপাড়া এলাকায় মায়ের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

গত ১৪ জুলাই বিকালে ইউসুফ ওই কিশোরীকে বেড়াতে নিয়ে যাবার কথা বলে কুয়াকাটা সৈকতের ঝাউবাগান এলাকায় নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। ঘটনার তিনদিন পর ওই কিশোরীর মা তার নানা বাড়িতে এলে পুরো বিষয়টি সে মাকে জানায়। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ কিশোরীর মা ১৮ জুলাই (রোববার) রাতে স্বামী ইউসুফ ফকিরকে আসামী করে মহিপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে।

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, মামলা দায়েরের পরই পুলিশ ইউসুফের অবস্থান সনাক্ত করে পাশ্ববর্তী আমতলী উপজেলা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। সোমবার তাকে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান।


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন