ঢাকা ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

পাঁচ বছরে পাঁচ গুণ বেড়েছে বিদেশি জাতের গরুর চাহিদা

রিয়াজ সেজান
প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০২১ ২১:২৮:১৮ আপডেট: ২০ জুলাই ২০২১ ১০:০৭:৪৬
পাঁচ বছরে পাঁচ গুণ বেড়েছে বিদেশি জাতের গরুর চাহিদা

দেখতে স্বাস্থ্যবান, ওজন আর উচ্চতাও বেশি- এমন বিদেশি জাতের পশুর চাহিদা কোরবানির বাজারে কমপক্ষে পাঁচ গুণ বেড়েছে গেলো পাঁচ বছরে। 

আর চাহিদা বুঝে খামারিরাও এমন পশু পালছেন বেশি আর দামও পাচ্ছেন ভাল। তবে শুধু মাংস উৎপাদন করতে পারে এমন পশু পালন নিরুৎসাহিত করছে প্রাণীসম্পদ অধিদপ্তর। 

ব্রাহমা- একটি ভারতীয় গরুর জাত। পরে যুক্তরাষ্ট্রে দুই থেকে তিনটি জাতের সংমিশ্রণে ব্রাহামাকে উন্নত জাত হিসাবে তৈরি করা হয়েছে। 

উচ্চ তাপমাত্রায় টিকে থাকা, দ্রুত বেড়ে ওঠা আর রোগ-বালাই কম হওয়ায় কয়েক বছর আগে দেশের খামারগুলোতে শুরু হয় ব্রাহামার লালন-পালন। 

কোরবানির পশু হিসাবেও দেশের বাজারে জায়গা করে নিয়েছে এই জাতের গরু। সাদেক এগ্রো নামের এক খামারে এক একটি পশু বিক্রি হয়েছে কমপক্ষে ২০ থেকে ৩০ লাখ টাকায়।

শুধু তাই নয়, দেশের খামারগুলোতে বিদেশি জাতের গরুর চাহিদা গেলো পাঁচ বছরে কয়েকগুণ বেড়েছে বলে জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্টরা। 

খামারিরা বলছেন দেশিয় জাতের পাশাপাশি ফার্ম বিজনেসকে গড়ে তুলতে দরকার নতুন জাতের পশু। কম খাবারে বেশি বড় হওয়া পশু পালন করে অনেক খামার হতে পারে বেশ লাভবানও।

তবে শুধু মাংস উৎপাদন করতে পারে এমন পশুকে নিরুৎসাহিত করছে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর। তাদের যুক্তি মাংস উৎপাদনে এরই মধ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ দেশ, কিন্তু পিছিয়ে দুধ উৎপাদনে। 

ফলে সরকার দুধ উৎপাদনে খামারিদের উৎসাহ দিতে চায় বলে জানালেন, প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আজিজুল ইসলাম। 

দৈনিক পুষ্টির চাহিদা মেটাতে একজন পূর্ণ বয়স্ক লোকের দুধ প্রয়োজন কমপক্ষে ২৫০ মিলি লিটার। সেখানে বর্তমানে নিশ্চিত ১৭৫ মিলি লিটার দুধ। 

অন্যদিকে প্রতিদিন একজন পূর্ণ বয়স্ক লোকের ১২০ গ্রাম মাংসের চাহিদার বিপরীতে সরকার নিশ্চিত করতে পরেছে ১২৬ গ্রাম মাংস।


একাত্তর/এআর

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন