ঢাকা ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খাদে মাইক্রোবাস: বিইউপি'র ছাত্রসহ নিহত ২

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০২১ ২১:১০:৩৭ আপডেট: ২২ জুলাই ২০২১ ২১:১০:৫৬
নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খাদে মাইক্রোবাস: বিইউপি'র ছাত্রসহ নিহত ২

পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের মোল্লা স্ট্যান্ডের কাছে মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে পানিতে ডুবে চালক মাহাবুব হাওলাদার (২৮) ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র  ইমরুল কবির ইমু (২২) মারা গেছে। গাড়ী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ইমুর মা লাজু বেগমকে। আজ (২২ জুলাই) বিকেল সাড়ে তিনটায় পটুয়াখালী সদর উপজেলার আউলীয়াপুর ইউনিয়নে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহত ইমু ঢাকার মিরপুরের বিউপি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। মাইক্রোবাসটি কলাপাড়ার ধানখালী থেকে কলাপাড়া যাচ্ছিলো। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লাশ পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শী উদ্ধারকারী দুলাল মোল্লা জানান, কলাপাড়া থেকে পটুয়াখালীমুখী মাইক্রোবাসটি আচমকা নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। খাদে পানি বেশি থাকায় মাইক্রোটি উল্টে চাকা উপরের দিকে ভাসতে থাকে। তিনি ও স্থানীয় লোকজন তাৎক্ষনিক ভাবে পানিতে নেমে মাইক্রো থেকে চালকসহ তিনজনকে উদ্ধার করে। গাড়িতে থাকা নারী জানালা দিয়ে আগেই মাথা বের করায় তিনি বেঁচে যান। অপর দুজনের কোমড়ে সিটবেল্ট বাঁধা থাকায় তারা বের হতে পারেনি। অজ্ঞান অবস্থায়  দুজনকে বের করে হাসপাতালে পাঠানোর সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের শ্বাস ছিলো।

সোয়া চারটায় পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তাকে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত বলে ঘোষণা করেন। 

ঈদ উপলক্ষ্যে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি এসেছিল। আজ বিকেলে মা লাজু বেগমের সাথে ভাড়া মাইক্রোবাসে বরিশালে নানা বাড়িতে যাবার পথে  দুর্ঘটনায় কবলিত হয়ে বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান ইমুর মৃত্যু হল। 

আরেক নিহত মাহবুব হাওলাদারের বাড়ি কলাপাড়ার একই ইউনিয়নের লোন্দা গ্রামে। পটুয়াখালী সদর থানা জানায়, মাইক্রোবাসের চালক নিয়ন্ত্রন হারালে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে যে গাড়ি চালাচ্ছিল সে প্রকৃত ড্রাইভার নয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়না তদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন