ঢাকা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

পেগাসাস কেলেঙ্কারি সামলাতে ‘টাস্ক ফোর্স’ গঠন ইসরাইলের

৪৫ দেশের প্রায় ৫০ হাজার টেলিফোন নম্বরে আড়িপাতা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২৪ জুলাই ২০২১ ১১:১০:৩৭ আপডেট: ২৫ জুলাই ২০২১ ০৯:৩৪:৪১
পেগাসাস কেলেঙ্কারি সামলাতে ‘টাস্ক ফোর্স’ গঠন ইসরাইলের

ইসরাইলি কোম্পানি এনএসও গ্রুপের তৈরি করা স্পাইওয়্যার পেগাসাস ব্যবহার করে বিশ্বজুড়ে নানান ব্যক্তিদের ফোনে নজরদারি চালানোর ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর তা সামাল দিতে একটি ‘টাস্ক ফোর্স’ গঠন করেছে সেদেশের সরকার।

ব্রিটেনের শীর্ষ দৈনিক দ্যা গার্ডিয়ানের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে পেগাসাস স্পাইওয়ার ব্যবহার করে আড়িপাতা হয়েছে বিশ্বের প্রায় ৪৫টি দেশের প্রায় ৫০ হাজার টেলিফোন নম্বরে।

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লর্ড সভার সদস্য ব্যারোনেস পলা মঞ্জিলার নামও রয়েছে এই তালিকায়। ২০১৭ থেকে  ২০১৯ সালের তালিকায় নাম রয়েছে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের প্রথম এই মুসলিম লর্ড সভার সদস্যের।

ব্যারোনেস উদ্দীন ছাড়াও প্রায় ৪ শতাধিক ব্রিটিশ নাগরিকের ফোন নম্বর নজরদারিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভূমিকা রয়েছে বলে প্রমাণ পেয়েছে দ্যা গার্ডিয়ান।

পেগাসাস স্পাইওয়ার নিয়ে হাউজ অব লর্ডসের বিতর্কে ব্রিটিশ নাগরিকদের উপর এ ধরণের সাইবার হামলা বন্ধে সরকার নিশ্চয়তা দিতে না পারলে রাষ্ট্রের সার্বোভৌমত্ব ক্ষুণ্ণ হবে বলে দাবি করেন ব্যারোনেস পলা উদ্দীন।

এর জবাবে, কমনওয়েলথ মন্ত্রী লর্ড আহমেদ এধরণের নজরদারি প্রতিরোধে ব্রিটিশ সরকার কাজ করবে বলে আশ্বস্ত করেন।

যদিও প্যাগাসাস স্পাইওয়্যার নির্মাতা ইজরাইলি প্রতিষ্ঠান এনএসও গ্রুপ দাবি করেছে, তারা শুধুমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে এধরণের স্পর্শকাতর সফটওয়্যার বিক্রি করে থাকে।

এদিকে প্যাগাসাস স্পাইওয়ারের অপব্যবহার তদন্ত করার ঘোষণা দিয়েছে ইসরাইল। বুধবার (২১ জুলাই) ইসরাইলের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ান জানায়, দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, বিচার মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, সামরিক গোয়েন্দা বিভাগ ও জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে এই টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে।

ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানসহ ১৬টি সংবাদপত্রের অনুসন্ধানের মধ্য দিয়েই পেগাসাস কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে এসেছে। বলা হচ্ছে, এনএসও গ্রুপ থেকে এই স্পাইওয়্যার কিনে নিজের দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ওপর নজরদারি চালিয়ে আসছে ‘কর্তৃত্ববাদী’ সরকারগুলো।

পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক কর্মকর্তার বরাতে মঙ্গলবার রাতে ইসরাইলের সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, এই টাস্ক ফোর্স খাতিয়ে দেখবে স্পর্শকাতর সাইবার সরঞ্জামাদি বিক্রির ক্ষেত্রে কোনও ধরনের ‘নীতি পরিবর্তন’ দরকার আছে কিনা।

আরও পড়ুন: ফেসবুকে সেরা কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের বিলিয়ন ডলার পুরষ্কার ঘোষণা

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘কর্তৃত্ববাদী’ সরকারগুলোর কাছে পেগাসাস স্পাইওয়্যার বিক্রির খবর ফাঁসের পর ইসরাইলের উপর কূটনৈতিক চাপ বেড়েছে।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন