ঢাকা ১৯ সেপ্টেম্বার ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

উষ্ণ সম্পর্কের লক্ষ্যে চীন-তালেবান আলোচনা শুরু

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৯ জুলাই ২০২১ ১০:৪৬:০৫ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২১ ১০:৪৮:৪৪
উষ্ণ সম্পর্কের লক্ষ্যে চীন-তালেবান আলোচনা শুরু

চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় শহর তিয়ানজিনে তালেবান নেতাদের একটি প্রতিনিধি দলের সাথে আলোচনায় বসেছে চীন। দুই দিনের এ বৈঠকে তালেবান ও চীনের শীর্ষস্থানীয় নেতারা দুই দেশের ভবিষ্যৎ সম্পর্ক নিয়ে কথা বলবেন।    

বুধাবার (২৮ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শীর্ষ পর্যায়ের একটি তালেবান প্রতিনিধিদল বেইজিং কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনার লক্ষ্যে চীনে পৌঁছেছে। তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নায়েম এ কথা নিশ্চিত করেছেন।

নয় সদস্যের তালেবান প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সংগঠনটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা আবদুল গণি বারাদর।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ির মতে, তালেবানরা হলো আফগানিস্তানের প্রধান সামরিক ও রাজনৈতিক শক্তি। তাই তালেবান নেতাদের শান্তি আলোচনার পক্ষে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। 

তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নায়েম বলেন, তারা চীনকে আশ্বস্ত করেছে যে, অন্য কোনো দেশকে আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না। 

নায়েম জানান, আফগানিস্তানের ব্যাপারে চীনও নাক গলাবে না বলে অঙ্গীকার করেছে বেইজিং। তবে আফগানিস্তানের সমস্যা সমাধান ও দেশটিতে শান্তি আনার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে চীন।

আরও পড়ুন: 'এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি মুনাফা দেয় বাংলাদেশের পুঁজিবাজার'

আফগানিস্তান ইসলামি প্রজাতন্ত্র দক্ষিণ এশিয়ার একটি স্বাধীন রাষ্ট্র। ইরান, পাকিস্তান, চীন, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান ও তুর্কমেনিস্তানের মধ্যস্থলে মালভূমির উপর অবস্থিত দেশটি। প্রাচীনকাল থেকেই এশিয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। ফলে প্রতিবেশি দেশগুলোর চোখে আফগানিস্তান বরাবরই একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল।


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন