ঢাকা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

পশু বিক্রি করতে না পারায় বিপাকে পাবনার খামারিরা

মুস্তাফিজুর রহমান, পাবনা
প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০২১ ২০:৫৮:১৭ আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২১ ২৩:২৩:১৭
পশু বিক্রি করতে না পারায় বিপাকে পাবনার খামারিরা

লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী কোরবানির পশু বিক্রি করতে না পারায় বিপাকে পরেছেন অসংখ্য খামারী। পাবনায় এবার ৪০ শতাংশ গরু বিক্রি হয়নি। খাবার খরচসহ খামারিদের লালন-পালনের ব্যয় বাড়ায় গুণতে হচ্ছে আরও লোকসান। এদিকে আগে থেকেই ঋণের বোঝা থাকায় বিক্রি না হওয়া গরু নিয়ে পড়তে হচ্ছে দুশ্চিন্তায়।

পাবনার সদর ইউনিয়নের চর উগ্রগড় গ্রামের এমনই এক খামারি আওয়াল প্রামানিক। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ধার দেনা করে ১৭টি গরু নিয়ে গিয়েছিলেন ঢাকায়। কিন্তু বিক্রি না হওয়ায় ১১টি গরু তাকে ফেরত আনতে হয়েছে। এখন পাওনাদের দেনা কিভাবে শোধ করবেন জানেন না তিনি। অথচ দেনা শোধের চাপ বাড়ছে প্রতিদিনই।

তারই মতন লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী কোরবানির পশু বিক্রি করতে না পারায় হতাশ হতে হয়েছে অসংখ্য খামারিকে। কোরবানির মৌসুমে এর আগে এত বড় লোকসানের মুখ দেখেননি কেউ।এবার হাটে চাহিদার চেয়ে কোরবাণির পশুর সরবরাহ বেশি ছিলো। যার কারণে ব্যবসায়ীরা চড়া দাম পাননি বলে মনে করছেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আল মামুন হোসাইন।

তিনি জানান, এবারের কোরবানি ঈদকে কেন্দ্র করে পাবনায় প্রায় তিন লক্ষ পশু প্রস্তুত ছিলো। যার প্রায় ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ পশু অবিক্রিত রয়ে গেছে।


একাত্তর/ এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন