ঢাকা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, কুষ্টিয়া ও ময়মনসিংহে করোনায় ৫৭ জনের মৃত্যু

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০১ আগষ্ট ২০২১ ১৬:১০:৫১ আপডেট: ০১ আগষ্ট ২০২১ ১৬:১২:৩৯
গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, কুষ্টিয়া ও ময়মনসিংহে করোনায় ৫৭ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ছয়জনের। একই সময় করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন সাতজন এবং করোনা মুক্ত হয়েও পরবর্তী স্বাস্থ্য জটিলতায় মারা গেছেন আরও পাঁচজন। 

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে রাজশাহীর ছয়জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন, নাটোরের চারজন, নওগাঁর তিনজন, পাবনার তিনজন ও কুষ্টিয়ার একজন রয়েছেন। 

মৃতদের মধ্যে ১১ জন পুরুষ এবং সাতজন নারী। যাদের পাঁচজনের বয়স ৬১ বছরের বেশি। বাকিদের মধ্যে ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে চারজন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সের চারজন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যে পাঁচজন রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৫৩ জন। একই সময় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৪৬ জন। রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত করোনা ইউনিটের ৫১৩ বেডের বিপরীতে ভর্তি আছে ৪১৮ জন। এদের মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ১৮ জন।


এছাড়াও, করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগীদের মধ্যে ১৯৫ জনের করোনা পজিটিভ রয়েছে। উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছে ১৬০ জন; যাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও করোনা মুক্ত হয়েও পরবর্তী স্বাস্থ্য জটিলতায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ৬৩ জন।

এদিকে, কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত শনিবার সকাল ৮টা থেকে আজ রোববার (১ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জনের করোনা পজিটিভ ও চার জনের করোনার উপসর্গ ছিল।

গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৫৫৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১৮১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আব্দুল মোমেন জানান, বর্তমানে হাসপাতালে ১৯১ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী এবং ৫২ জন উপসর্গ নিয়ে মোট ২৪৩ জন ভর্তি রয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, জেলায় হোম আইসোলেশনে আছেন দুই হাজার ৮১৮ জন। কুষ্টিয়ায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৪১৬ জন এবং মারা গেছেন ৫৫৩ জন।

এছাড়াও, কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩১০ জন এবং উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৯৪ জন।

জেলায় জুলাই মাসে করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ছয় হাজার ৪৭৪ জন। করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের পরিমাণ বাড়ার পরেও স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না জেলার মানুষ।


এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে নয়জন করোনায় এবং ১২ জন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। 

রোববার (০১ আগস্ট) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান মুন। 

তিনি জানান, করোনায় মৃতদের মধ্যে ময়মনসিংহের পাঁচজন, টাঙ্গাইলের দুইজন এবং গাজীপুরের একজন রয়েছেন। মৃতদের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও চারজন নারী। বয়স ৫০ থেকে ৭০ বছর। করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃতদের মধ্যে ময়মনসিংহের ১০ জন ও জামালপুরে দুইজন। 

এছাড়াও, গত ২৪ ঘন্টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল এ নতুন ৯৪ জন ভর্তিসহ চিকিৎসা নিচ্ছেন ৫২৮ জন করোনা রোগী। এর মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ২২ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫০ জন। 

এদিকে ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলায় ২ হাজার ১১৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫৯১ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৮৯ শতাংশ বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. মো. শাহ আলম।

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন