ঢাকা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

মেঘনার ভাঙ্গনে দিশেহারা ভোলার রাজাপুরের মানুষ

কামরুল ইসলাম, ভোলা
প্রকাশ: ২৮ আগষ্ট ২০২১ ১৭:৪৮:০৩ আপডেট: ২৮ আগষ্ট ২০২১ ১৮:৪৬:২৭
মেঘনার ভাঙ্গনে দিশেহারা ভোলার রাজাপুরের মানুষ

মেঘনা নদীর তীব্র ভাঙ্গনে দিশেহারা ভোলার রাজাপুরের মানুষ। এরই মধ্যেনদীর পেটে চলে গেছে প্রায় তিনশ’ মিটার এলাকা। ভিটেমাটি হারিয়েছে ১০ পরিবার।

আর, ভাঙন হুমকিতে রয়েছে আরো একশ’রও বেশি স্থাপনা। এদিকে ভাঙন ঠেকাতেপানি উন্নয়ন বোর্ড বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলতে শুরু করেছে।

মেঘনা নদীর পানির বাড়ায় ভোলা সদরের রাজাপুরে জোড়া খাল এলাকায় শুরুহয়েছে ভাঙ্গন। আতঙ্কের মধ্য দিয়ে দিন কাটছে নদী তীরের মানুষদের।

চার কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ভাঙন সৃষ্টি হওয়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন নদীপাড়ের মানুষ। গেলো এক সপ্তাহে প্রায় তিনশ’ মিটার এলাকা চলে গেছে নদী গর্ভে।

এতে ভিটেমাটি হারিয়েছে দশ পরিবার। এছাড়া, কমপক্ষে অর্ধশতাধিক ঘর-বাড়িসহবহু স্থাপনা বিলীন হয়ে গেছে। আর, ভাঙ্গন হুমকিতে রয়েছে শতাধিক স্থাপনা।

ভাঙন কবলিত পরিবারগুলো ঘরবাড়ি ও গাছপালা কেটে শেষ সম্বল যা রয়েছে তাসরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। তবে তারা এখনো জানেন না তাদের গন্তব্য কোথায়।

এরই মধ্যে ভাঙন ঠেকাতে পানি উন্নয়ন বোর্ড জরুরি বালুভর্তি জিও টিউবফেলার কাজ শুরু করেছে। আর, ক্ষতিগতস্তদের সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে বলছেন জেলা প্রশাসক।

বর্তমানে মেঘনা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৪ সেন্টিমিটার ওপরে রয়েছে। ফলেস্রোত বাড়ছে সেই সঙ্গে ভাঙনও বাড়ছে।

 


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন