ঢাকা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সঙ্কট কাটিয়ে আবারও নীল পানি চীনামাটির পাহাড়ে পর্যটক

সংবাদদাতা (দুর্গাপুর) নেত্রকোণা
প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৫:১২:০৪ আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:৪৭:২১
সঙ্কট কাটিয়ে আবারও নীল পানি চীনামাটির পাহাড়ে পর্যটক

সোমেশ্বরীর স্বচ্ছ নীল পানি আর নানা রঙের চীনামাটির পাহাড়ে ঘেরা নেত্রকোনার দুর্গাপুরের বিজয়পুর, কমলা বাগান, রানীখংসহ বিনোদন স্পটগুলোতে ভিড়তে শুরু করেছে পর্যটক। যদিও করোনার কারণে প্রায় দেড় বছর থমকে ছিল পাহাড়, নদী ঘেরা এই পর্যটন কেন্দ্র। হাসি ফিরেছে স্থানীয় পর্যটনে। পর্যটকদের পাশাপাশি এখন স্থানীয় ব্যবসায়ীরাও এখন আনন্দিত। লোকসানের বোঝা মাথা থেকে নামিয়ে তারা এখন ব্যস্ত পর্যটকদের আতিথেয়তায়। 


তবে পর্যটকরা বলছেন, স্পটগুলোর আশেপাশে পাবলিক টয়লেটসহ বসার ব্যবস্থা করা গেলে আরও আকর্ষণীয় হয় উঠবে। এদিকে পর্যটকদের টানতে নতুন করে সবকিছু পরিপাটি করে তুলেছেন স্থানীয় ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর কালচার একাডেমিসহ হোটেল ব্যবসায়ীরা। 


পাহাড় আর নয়নাভিরাম খরস্রোতা নদীর মিতালীর এই উপজেলার বেশিরভাগ এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে সাদা মাটির পাহাড়। এছাড়াও সিলিকন বালু, কয়লাসহ রয়েছে প্রাকৃতিক নানা সম্পদ। স্থানীয়রা বলছেন, উপজেলার সদর ও কুল্লাগড়া ইউনিয়নের পর্যটন স্পটগুলোকে কাজে লাগিয়ে বড়ো ধরনের রাজস্ব আয় করা সম্ভব। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি স্থানীয়ভাবেও পর্যটন স্পটের আশপাশে অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা নিয়ে ঢেলে সাজাতে চান স্থানীয় বাসিন্দারা।


দুর্গাপুরের এক হোটেল ব্যবসায়ী জানান, এক বছর যাবত হোটেল দিয়েছে, কিন্তু ছয় মাসই বন্ধ ছিলো। এখন নতুন করে পর্যটকরা আসায় হোটেল ভালো চলছে। 

বিরিশিরি ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমির পরিচালক সুজন হাজং জানান, একাডেমির পক্ষ থেকে পর্যটকদের টানতে আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতিটি স্পটের ছবিসহ বিস্তারিত তথ্য দেওয়া থাকছে। এছাড়াও আর্ট গ্যালারি করার চিন্তাভাবনা করছি। 


উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিব উল আহসান জানান, ইতিমধ্যে দুর্গাপুরের বিজয়পুরের সাদামাটি জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। আমরা এই মাধ্যমকে ব্যবহার করে পর্যটকদের কাছে পর্যটন স্পটগুলো তুলে ধরার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে একটি মাস্টার প্ল্যান হাতে নিয়েছে। আশা করি অচিরেই কাজগুলো সম্পন্ন হলে দুর্গাপুর তথা সারাদেশের মানুষ দুর্গাপুরের এই পর্যটন শিল্পের সুফল পাবে।

একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন