সেকশন

সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
 

ইট আর কংক্রিটের জঞ্জালে বেহাল কুয়াকাটা সৈকত

আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৫ পিএম

তিনমাস আগে উন্নয়ন কার্যক্রম শেষ হলেও এখনো ইট, বস্তা আর কংক্রিটের জঞ্জালে হুমকিতে রয়েছে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত। কুয়াকাটা জিরো পয়েন্ট এখন ধ্বংসস্তুপের ভাগাড়। 

পর্যটকদের অভিযোগ, এই ভাগাড়ে চলতে হয় ঝুঁকি নিয়ে, আর জোয়ারের পানিতে যখন এই জঞ্জাল ডুবে থাকে, তখন সমুদ্র স্নানে নামলেই ঘটছে দুর্ঘটনা। 

ভাঙন থেকে সৈকত রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ড চলতি বছরের জানুয়ারিতে তিন কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে দেড় হাজার মিটার ওভেন টিউব ফেলে কুয়াকাটা সৈকতে। কাজ শেষ হয় জুনে। 

কাজ শেষে এখনো সৈকতজুড়ে ছড়ানো ছিটানো কংক্রিটের জঞ্জাল। পর্যটকদের অভিযোগ, জোয়ারে নামতেই পারছেন না তারা। ব্যবস্থা না নিলে সৈকতে হাঁটাই যাবে না।

এছাড়া, সৈকতের জিরো পয়েন্টের দু’পাশে সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে জিও ব্যাগ ফেলে তীর সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয় পাউবো। 

তবে বর্তমানে এসব জিও ব্যাগ সৈকতে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকায় বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরি হয়েছে, যা বিমুখ করছে পর্যটকদের।

আর এলাকার মানুষ বলছেন, অব্যাহত ভাঙনে সৈকতের পূর্ব দিকের গঙ্গামতি, ইকোপার্ক, নারিকেল কুঞ্জ, ও লেম্বুর বন সৈকতসহ ছোট হয়ে আসছে কুয়াকাটার প্রধান সড়কটিও। 

এরইমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে দর্শনীয় স্থান নারিকেল বাগান ও জাতীয় উদ্যান। সৈকত চলে এসেছে কুয়াকাটা চৌমাথার ২০০ ফুটের মধ্যে।

এসব নিয়ে ক্যামেরায় কিছু বলতে চাননি পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা। তবে টেলিফোনে তারা জানিয়েছেন পর্যটকরা ওভেন টিউব ছিদ্র করে ফেলায় সৈকতের এই দুর্গতি।  

এদিকে, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এলাকা পরিদর্শনে এসে বলেন, কুয়াকাটা সৈকত উন্নয়নে ৯৫০ কোটি টাকার প্রস্তাব রয়েছে। প্রয়োজনে টাকা বাড়ানো হবে।  

এর আগে ২০১৯ সালে এই সৈকতের ভাঙন রোধে এক কোটি ৯০ লাখ ব্যয়ে ৩৭০ মিটার জিওটিউব বসানো হয়েছিলো। যা বসানোর তিন মাসেই ভেসে যায় সাগরে। 


একাত্তর/এআর

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় তাপদাহের কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। শুধু এপ্রিলেই ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩১৬ জন। আর আউটডোরে চিকিৎসা নিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। 
ডেভিল কমেট বা শিংওয়ালা ধূমকেতু। পৃথিবী থেকে যার দেখা মেলে নূন্যতম ৭১ বছর পর। চলতি বছরের ২১ এপ্রিল ছিলো সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। দুর্লভ এই মুহূর্তের সাক্ষী হতে রাজশাহীর পদ্মাপাড়ে জড়ো হয়েছিলেন হাজারো...
চলমান তাপপ্রবাহের কারণে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমের ফলনে বিরূপ প্রভাব পড়েছে। শতকরা ৬০ ভাগ মুকুল আসলেও বৈরী আবহাওয়ায় মাত্র ২৫ ভাগ গাছে আম ঝুলছে। দ্রুত বৃষ্টি না হলে বা সেচ দিতে না পারলে অবশিষ্ট আমও ঝরে...
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে থাকা গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে একটি যাত্রীবাহী বাসের ছাদ উড়ে যাওয়ার ঘটনায় যাত্রী নিহত ও আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে শাহজাদপুরে বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কের...
প্রকৃতি ধ্বংস না করেও যে একটি বড় নগর বা সভ্যতা গড়ে তোলা যায় তার জলজ্যান্ত উদাহরণ ইতালির ভেনিস। একটি শহরের ভেতর দিয়ে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে বয়ে যাচ্ছে দেড়শ’র বেশি খাল।
বন্যার পূর্বাভাসসহ পানি ইস্যু ও রাজনৈতিক বার্তা নিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসছেন চীনের দুটি বড় প্রতিনিধিদল।
যুদ্ধে অস্ত্রের পেছনে অর্থ ব্যয় না করে সে টাকা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় খরচ করলে বিশ্ব রক্ষা পেতো বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ পৃথিবী গড়তে ছয়টি...
পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় তাপদাহের কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। শুধু এপ্রিলেই ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩১৬ জন। আর আউটডোরে চিকিৎসা নিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। 
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত