সেকশন

মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

কাগজে থাকলেও বহু হাসপাতালেই নেই এনসিডি কর্ণার

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৪ পিএম

সরকারি খাতায় অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে ২০০টি উপজেলা হাসপাতালে নন কমিউনিক্যাবল ডিজিজ বা এনসিডি কর্ণার হয়েছে।

কিন্তু সরেজমিন ঘুরে দেশের ৬৫ ভাগ হাসপাতালেই এর কোন অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। অথচ এর পেছনে খরচ হয়ে গেছে ৪শ কোটি টাকা। খরচের অপেক্ষায় আছে আরো ৭শ’ কোটি।

ষাট বছর বয়সী মিনারা খাতুন। অনিয়ন্ত্রিত ডায়বেটিকের কারণে পায়ের ক্ষতস্থানে ছড়িয়েছে গ্যাংরিন। অসহ্য যন্ত্রণা নিয়ে তিনি ভর্তি হয়েছেন গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। আছে উচ্চ রক্তচাপও।

এমন রোগীদের জন্য সেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণকেন্দ্র বা এনসিডি কর্ণার থাকার কথা। যেখান থেকে তার বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধ পাবার কথা। কিন্তু মিনারা বেগম সেটি জানেন না।

তার এমন অনেক রোগীর দেখা মিললো এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। অনিয়ন্ত্রিত ডায়বেটিক যাদের প্রাণ শক্তি শুষে নিচ্ছে।

দেশের ৬০ শতাংশ মানুষের অসুস্থতা ও মৃত্যুর কারণ এমন অসংক্রামক ব্যাধি। প্রত্যন্ত এলাকায় রোগগুলোর প্রভাব ঠেকাতে ২০১৭ সালে ৫ বছর মেয়াদী একটি প্রকল্প হাতে নেয় সরকার।

প্রকল্প ব্যায় ১,১০০ কোটি টাকা। যা দিয়ে দেশের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে একটি করে অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র খুলে সেখানে এই রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়ার কথা।

কিন্তু, একাত্তরের অনুসন্ধান বলছে সেই টাকার পুরোটা খরচ হলেও অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র হয়েছে মাত্র কয়েকটি।

কাগজে কলমে গাজীপুরের চার উপজেলায় আছে এনসিডি কর্ণার। টাকা বরাদ্দ এবং খরচ শেষ কিন্তু শ্রীপুরে গিয়ে কিছুই পাওয়া গেলো না।

এবারের গন্তব্য সিরাজগঞ্জ। জেলার আটটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনসিডি কর্ণার আছে। যার একটি রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। যা ইতিবাচক উদাহরণ হিসেবেই সামনে এসেছে।

কিন্তু পাশের উপজেলায় তাড়াশে নেই এনসিডি কর্ণারের অস্তিত্ব। এই জেলার অন্য এনসিডি কর্ণারগুলো সাইনবোর্ড সর্বস্ব।

পরের গন্তব্য নাটোর। সরকারি নথি বলছে, নাটোরের পাঁচটি উপজেলায় এনসিডি কর্ণার হয়েছে। মানুষ সেবাও পাচ্ছে। যার একটি বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। কিন্তু চিকিৎসাকর্মীদেরই সেই তথ্য অজানা।

আর, লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্যকর্মীরা বলছে, সেখানে সেই ব্যবস্থা নেই। যদিও আবাসিক চিকিৎসক জানান তাদের সেখানে সচল আছে কর্ণারটি।

সেটি দেখতে চাইলে সাইনবোর্ড লাগানো তালাবদ্ধ এক রুমের সামনে নিয়ে যান। যে কক্ষটিতে ধুলোর আস্তরণ আর পরিত্যক্ত জিনিসপত্রের ভাগাড় হয়ে আছে।

মোট ৪২টি জেলার ৬৬টি সম্পূর্ণ ও ১৩৪টি প্রস্তাবিত এনডিসি কর্ণারের তালিকাটি ধরে ধরে অনুসন্ধান চালায় একাত্তর।

আরও পড়ুন: ব্লাড ক্যান্সারের চিকিৎসা দেশেই মিলছে, তবে…

যার মধ্যে ১১২টি উপজেলার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৬৮টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্ণারের কোন অস্তিত্বই নেই। ১৬টি সাইনবোর্ড সর্বস্ব।

আর যেগুলোতে আছে সেখানেও রয়েছে ডাক্তার, নার্স, ওষুধ সরবরাহ পর্যাপ্ত নেই। এসব নিয়ে প্রশ্ন করলে নিজের অসহায়ত্বের কথা স্বীকার করলেন সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত লাইন ডিরেক্টর।

একাত্তর/আরএ

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। এরইমধ্যে ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ।
প্রায় ৩৬ ঘণ্টা ধরে উপকূলীয় অঞ্চল ও সুন্দরবনে তাণ্ডব চালিয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল। ঝড়ে সুন্দরবনের গাছপালা, বন্যপ্রাণী ও অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জলোচ্ছ্বাসে পানি বেড়ে তলিয়ে গেছে বেশিরভাগ এলাকা।
ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে পড়ে যাওয়া গাছ কাটার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রাসেল হোসেন (২১) নামে একজন ফায়ারফাইটারের মৃত্যু হয়েছে।
নরসিংদী সদরের চরাঞ্চলে এক ব্যবসায়ীর স্তূপ করে রাখা ইটের নিচে চাপা পড়ে এক বৃদ্ধ দম্পতির মৃত্যু হয়েছে।
জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) জন্য নতুন গাড়ি কেনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।
ঘূর্ণিঝড় দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। এরইমধ্যে ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ।
ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের দেহাংশ পাওয়া নিয়ে ক্রমেই জটিলতা বাড়ছে। মৃত্যুর পর পেরিয়ে গেছে বহুদিন। এরমধ্যে পুরো কলকাতা তন্ন তন্ন করে খুঁজে দেহের একটি অংশও উদ্ধার করতে পারেনি তদন্তকারী...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত