সেকশন

মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

রাঙ্গাবালীতে বৃষ্টির জন্য অঝোরে কান্না

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৯ পিএম

এ কান্না কোনো শোকের কান্না নয়। প্রচণ্ড গরম থেকে রক্ষা পেতে সৃষ্টিকর্তার কাছে এক পশলা বৃষ্টি প্রার্থনা করে কাঁদছেন এই মানুষগুলো। এ যেন উপায়ান্তহীন মানুষের সর্বশেষ প্রচেষ্টা। এই প্রচণ্ড গরম থেকে পরিত্রাণের জন্য নামাজ আদায়ের পর মোনাজাতে একটু বৃষ্টির আশায় অঝোরে কাঁদছেন মুসল্লিরা।  

তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। পারদ চড়তে চড়তে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে। গত কয়েকদিনে সূর্যের বেপরোয়া তাপে পুড়ছে ফসলের মাঠ।

স্বস্তিতে নেই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ঘরের মানুষেরাও। প্রচণ্ড রোদে হাঁসফাঁস অবস্থা প্রাণীকুলের। কোথাও মিলছে না কোনো স্বস্তি। 

রোদের এমন তীব্রতা দেখা যায়নি খুব কাছাকাছি সময়ে; ফলে বাধ্য হয়েই দেশে জারি করা হয়েছে হিট এলার্ট। বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান; অনেক বিশ্ববিদ্যালয় বাধ্য হয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে অনলাইন ক্লাস নেয়ার। আর স্কুল-কলেজ তো বন্ধই রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

আবহাওয়া অফিস বলছে, বেশ কয়েকদিন চলবে সূর্যের এমন আক্রমণ। তীব্র বৃষ্টি না হওয়া পর্যন্ত এ অবস্থায় থেকে নিস্তার নেই। অথচ তীব্র বৃষ্টি দূরে থাক, মিলছে না এক ফোঁটা বৃষ্টির দেখাও। তাইতো এই মানুষগুলো একটু বৃষ্টির জন্য চোখের পানি ছেড়ে আল্লাহরে কাছে দু’হাত তোলে অঝোরে কাঁদছেন একটু বৃষ্টির জন্য।

তাপদাহ থেকে মুক্তি পেতে ও রহমতের বৃষ্টি বর্ষণের জন্য সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় রাঙ্গাবালি উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের লঞ্চ ঘাট সংলগ্ন এলাকার মসজিদ-ই-নূর জামে মসজিদ মাঠে ইসতিসকার নামাজ আদায় করা হয়। নামাজ শেষে আল্লাহর রহমত কামনা করে তাপদাহ থেকে মুক্তি এবং বৃষ্টি বর্ষণের জন্য মোনাজাত করা হয়। 

এর আগে দীর্ঘসময় ধরে মসজিদে দোয়া-দরুদ পাঠ করেন নামাজে অংশ নিতে আসা মুসল্লিরা। বিশেষ এই নামাজের মোনাজাত পরিচালনা করেন মসজিদ-ই-নূর-এর পেশ ইমাম মাওলানা ক্বারী মোহাম্মদ আল আমিন ইউনুস। 

নামাজ শেষে মাওলানা ক্বারী মোহাম্মদ আল আমিন ইউনুস বলেন- দাবদাহ থেকে নিষ্কৃতি পেতে আল্লাহ তাআলার কাছে তওবা করে দুই রাকাত নফল নামাজ পড়ে আকুতি ভরে বৃষ্টির জন্য দোয়া করতে হয়। এই নামাজকে ইস্তিসকার নামাজ বলে।

শুধু রাঙ্গাবালীই নয়, প্রচণ্ড গরম থেকে মুক্তির আশায় আল্লাহর কাছে পানাহ চেয়ে ইস্তিসকার নামাজ আদায়ের খবর এসেছে চুয়াডাঙ্গা ও যশোরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকেও। 

এআরএস
ঘূর্ণিঝড় রিমাল চলে গেলেও পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে রেখে গেছে ক্ষতচিহ্ন। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে আছেন চালিতাবুনিয়া ও চরমোন্তাজ ইউনিয়নসহ উপজেলার নিচু এলাকার ৫০ হাজার মানুষ।
বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এ কারণে পায়রা সমুদ্র বন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।  
সিলেট ও ময়মনসিংহ অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।
দেশের বিভিন্ন জেলায় ঝড়োহাওয়াসহ বৃষ্টি হয়েছে। বজ্রপাতে হয়েছে মৃত্যুও। এছাড়া ঝোড়ো হাওয়ার কারণে নদীবন্দরে দেয়া হয়েছে সতর্ক সংকেত।
রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের কাছে পরিচয়পত্র জমা দিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিনল্যান্ড, গুয়েতেমালা ও আয়ারল্যান্ডের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূতরা।
সাবেক সেনাপ্রধান অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল আজিজ আহমেদ এবং পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদকে নিয়ে সরকার অস্বস্তিতে নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 
সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) মাধ্যমে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের (১৩ থেকে ২০ গ্রেড) নিয়োগের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে সরকার।
ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে সারাদেশে এখনও ৪৫ শতাংশ মোবাইল সাইট অসচল রয়েছে বলে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি।
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত