সেকশন

মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

দরপতনে মার্জিন ঋণের ফাঁদে আবার নিঃস্ব বিনিয়োগকারীরা

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৬ পিএম

ফ্লোর প্রাইস তুলে নেয়ার পর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণে পুঁজিবাজার কয়েকদিন স্থিতিশীল থাকলেও আবার ফিরেছে পতনের ধারায়। আর এতে মার্জিন ঋণের ফাঁদে পড়ে পুঁজি হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছে বিনিয়োগকারীরা।

সংশ্লিষ্টরা বলছে, এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য দ্রুত মার্জিন ঋণের আইন পরিবর্তন আনতে হবে। আর তা করা না হলে ভবিষ্যতে আরো ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

প্রায় দেড় বছর ফ্লোর প্রাইসে আটকে থাকে পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট। নিম্নমুখী বাজারে মার্জিন ঋণের ফাঁদ থেকে বিনিয়োগকারীদের রক্ষ করতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছিলো বলে তখন নিয়ন্ত্রক সংস্থা থেকে বলা হয়।

এরপর গত জানুয়ারি মাস থেকে ধাপে ধাপে তুলে দেওয়া হয় ফ্লোর প্রাইস। এতে সাময়িকভাবে বাজারের সূচকের উত্থান ঘটে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। আবার পতনে নিমজ্জিত হয়েছে পুঁজিবাজারের সূচক।

ফ্লোর প্রাইজ তুলে নেয়ার প্রথম দিকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের সক্রিয়তার বাজার স্থিতিশীল থাকলেও এখন তা নেই বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

আর স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে পতন ঠেকাতে যে ফ্লোর প্রাইস বসানোয় আদৌ কি শেষ রক্ষা হয়েছে বিনিয়োগকারীদের? ফ্লোর প্রাইসের আটকে শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকলেও থেমে থাকেনি মার্জিন ঋণের সুদের হার। চক্রবৃদ্ধিহারে বেড়েছে সুদ।

বিশ্লেষকরা বলছেন, পড়তি বাজারে জেনে বুঝেই সাইডলাইনে আছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। মার্জিন ঋণের ফাঁদে পড়ে বিনিয়োগকারীরা নিঃস্ব হলেও বাজার স্থিতিশীল না হওয়া পর্যন্ত কোনো বাজারে কোনো সাপোর্ট দেবেন না তারা।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিদিনই বাড়ছে ফোর্স সেলের চাপ। এতে পুঁজি হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

আর ২০১০ সালের ধসের অভিজ্ঞতা থাকার পরেও মার্জিন ঋণের আইন সংশোধন না হওয়াকেও দুঃখজনক বলে মনে করছেন ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আহমেদ রশীদ লালি।

পুঁজিবাজার ও কোম্পানি আইন বিশ্লেষক ব্যারিস্টার এ এম মাসুম বলেন, বিদ্যমান আইন পরিবর্তন না করেও নিয়ন্ত্রক সংস্থা যে কোনো নিয়ম সংযোজন বিয়োজন করতে পারবেন।

বর্তমান বাজারে ১৬ শতাংশ হারে সুদে যারা মার্জিন ঋণ নিচ্ছেন তাদেরও সতর্ক থাকার কথা বলেন সংশ্লিষ্টরা। কারণ পতনমূখী বাজারে ১৬ শতাংশের বেশি আয় হবে কিনা, তা নিয়েও ভাবার পরামর্শ দিয়েছেন। 

আরবি
আগামী অর্থবছরে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ খাতে প্রায় ৩৯ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে। যা চলতি অর্থ বছরের তুলনায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা বেশি।
অধিকার ছাড়িয়া দিয়া অধিকার রাখিতে যাইবার মতো বিড়ম্বনা আর নাই’-হৈমন্তী গল্পে রবীন্দ্রনাথ এমনটা মনে করলেও বিড়ম্বনা নিয়ে কিছু যায় আসেনা বাংলাদেশ ব্যাংকের। তাই হয়তো ব্যাংক ঋণের সুদ হার বাজারভিত্তিক করার...
হাজারীবাগের চামড়া শিল্পকে অপরিকল্পিতভাবে সাভারে স্থানান্তর করায় জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে বলে জানালেন পরিবেশ বিষয়কমন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী। দেশের সম্ভাবনাময় এই শিল্পকে বাঁচাতে হলে পরিবেশবান্ধব...
হাইব্রিড তালিকাভুক্ত গাড়ি হঠাৎ নন-হাইব্রিড তালিকায় ফেলে উচ্চহারে শুল্ক ও জরিমানা আদায় করেছে শুল্ক বিভাগ। এতে বিপাকে পড়া রিকন্ডিশন্ড গাড়ি আমদানিকরকদের অভিযোগ, নতুন শ্রেণিবিন্যাসের আগে চার বছর ধরেই...
এশিয়ার অন্যতম ধনী ভারতীয় শতকোটিপতি ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানি ও নীতা আম্বানির ছোট ছেলে অনন্ত আম্বানি ও রাধিকা মার্চেন্টের দ্বিতীয় প্রাকবিবাহ উৎসব শুরু হতে চলেছে বুধবার।
ঘূর্ণিঝড় রিমাল রোববার রাত ৯টার দিকে উপকূলীয় অঞ্চলের মূল ভূখণ্ডে আঘাত হানে। এ সময় সুন্দরবন সংলগ্ন নদ-নদীতে ছিল ভাটার প্রবাহ। যার কারণে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধের তেমন ক্ষয়ক্ষতি...
বাংলাদেশে কর্মরত বৈধ-অবৈধ বিদেশি কর্মীদের তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী তিন মাসের মধ্যে এই তালিকা জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
তৃতীয় ধাপে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত