সেকশন

বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
 

স্বীকৃতির দাবিতে হুশিয়ারী বার্তা পাঠালো তালেবান

আপডেট : ৩১ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫২ পিএম

আফগানিস্তান সরকারকে স্বীকৃতি এবং বিদেশে আটক আফগানদের অর্থ ফেরত দেওয়া না হলে ভয়াবহ সংকট তৈরি হবে বলে হুশিয়ারী দিয়েছেন তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ।

শনিবার, আফগিন্তানের রাজধানী কাবুলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এই সংকট শুধু আফগানিস্তান নয়, পুরো বিশ্বকে ভুগতে হবে। 

তালেবান আগস্ট মাসে ক্ষমতায় আসলেও এখনো পর্যন্ত কোনো দেশ তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়নি। দেশটিতে ভয়াবহ মানবিক এবং অর্থনৈতিক সংকট চলছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন না পেলে আটকে রয়েছে বিপুল অর্থের অনুদান। অগস্টের পর থেকেই এ সব অনুদান বন্ধ হয়ে যায়। একই পথ অনুসরণ করেছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশও।

এ কারণে ব্যাপক আর্থিক সঙ্কটের মুখে আফগানিস্তান। মূল্যবৃদ্ধি আকাশছোঁয়া। দুর্ভিক্ষের মুখেও পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গণমাধ্যমকে মুজাহিদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য স্পষ্ট বার্তা, তারা যদি স্বীকৃতি না দেয়, আফগান সংকট চলতে থাকবে। এটা আঞ্চলিক সমস্যা, তবে বৈশ্বিক সংকটেও রূপ নিতে পারে।

এই মুহূর্তে যে কোনও সমঝোতার পথে হাঁটতে রাজি বলে ইঙ্গিত দিয়েছে তালেবান। তাদের দাবি, প্রয়োজনে রাজনৈতিক সমঝোতার পথেও হাঁটতে পারে।

গত ১৫ অগস্ট কাবুল দখল করে আফগানিস্তানের মসনদে বসে তালেবান। পূর্ব অভিজ্ঞতা ভিত্তিতে বহু মানুষ ভীত হয়েই দেশ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

ক্ষমতায় আসার পর শরিয়া আইনে দেশ পরিচালনার ঘোষণা দেয় তালেবান। বিশেষ করে নারীদের উপর ফিরিয়ে আনা হয় ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা।

এ কারণে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশের সমর্থন আদায় করতে পারেনি তালেবান। যদিও প্রথম দিন থেকেই তালেবান দাবি করেছে, প্রগতীশীল রাষ্ট্র গড়ার পথে হাঁটবে তাদের সরকার। নারীদের নিরাপত্তা এবং মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখা হবে। যদিও বাস্তবে কোনওটাই প্রতিফলিত হয়নি।


একাত্তর/এসএ

গাজায় ছয় মাসের যুদ্ধে লাশের সারির নিচে চাপা পড়েছে লাখো মানুষের স্বপ্ন। তাদেরই একজন বাসমা আল-শাভিশ। যুদ্ধে বাবা, ভাই-বোনকে হারালেও দমে যাননি তিনি।
যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার হুমকি উপেক্ষা করে ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করছে পাকিস্তান। দুই দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি-এফটিএ চূড়ান্তকরণ, জ্বালানি ও বিদ্যুৎখাতে সহায়তা বৃদ্ধিসহ...
টিকটকের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে আনা বিল অনুমোদন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট। এবার বিলটি স্বাক্ষরের জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে যাবে এবং তার স্বাক্ষরের পর এটা আইনে পরিণত হবে।
অবৈধ পথে ব্রিটেনে প্রবেশ করলেই পাঠিয়ে দেয়া হবে রুয়ান্ডা, সোমবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের এমন প্রস্তাব পাশ হয়েছে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে।
রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক-উদয়পুর সীমান্ত সড়কে ডাম্পট্রাক দুর্ঘটনায় নিহত ৯ শ্রমিকের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতদের স্বজনদের কাছে মরদেহগুলো...
সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ছাত্র নিহত হওয়ার পর ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীদের অবরোধ ও বিক্ষোভের মধ্যে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)।
ডলার সংকট মোকাবিলায় চাল আমদানির বিপরীতে জোর দেওয়া হচ্ছে কৃষকের কাছ থেকে বেশি হারে ধান সংগ্রহকে। এরই মধ্যে চাল আমদানি খাত থেকে ১৬শ কোটি টাকা বরাদ্দ কমানো হয়েছে।
নাটোরের সিংড়া উপজেলা নির্বাচনে নিজের শ্যালকের পক্ষে সংসদ সদস্য ও প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের হস্তক্ষেপ কেন ‘বেআইনি’ ঘোষণা করা হবে না এবং তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত