সেকশন

রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা বাড়ছে

আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০২৩, ০১:৩৯ পিএম

হামাস-ইসরাইল যুদ্ধের জেরে এক সপ্তাহজুড়ে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা বেড়েছে। মার্কিন প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদরদপ্তর পেন্টাগন বলছে, হামলায় মার্কিন সেনা হতাহতের সংখ্যা এক সপ্তাহে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ জন। এর মধ্যে ইরাকে ২০ জন এবং সিরিয়ায় ১৮ জন। এদিকে, ওয়াশিংটনে ইসরাইলমুখী অস্ত্রবাহী জাহাজ আটকে দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

ইসরাইল গাজায় হামলা চালানোর সমর্থন দেয়ায় মধ্যপ্রাচ্যে চরম বিপাকে আমেরিকান সেনারা। সেখানে থাকা মার্কিন ঘাঁটি লক্ষ্য করে বেড়েছে হামলার মাত্রা। ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে এসব হামলা চালাচ্ছে ইরান-সমর্থিত ইয়েমেনের হুথি, ইরাকি মিলিশিয়া ও লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। এসব শসস্ত্র সংগঠনের অর্তিকত হামলায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা।

সহিংসতা শুরুর পর শুধু ইরাকেই অন্তত ১২ বার হামলার শিকার হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা। এছাড়া সিরিয়ায়ও মার্কিন ঘাটিতে চারবার হামলা হয়েছে। পেন্টাগনের প্রেস সচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল প্যাট রাইডার বলছেন, সেনাদের কাজে বাধা দিতে ও হয়রানি সৃষ্টির লক্ষ্যেই হামলা চালানো হচ্ছে। 

এসব ঘটনায় ৪৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২৪জন মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। হামলার চিত্র বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মাত্র এক সপ্তাহে সেনাদের ওপর ছয় দফা হামলা চালানো হয়েছে। 

রাইডার আরও বলছেন,  যুক্তরাষ্ট্র নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে যেন সেনা হতাহতের সংখ্যা যেন বৃদ্ধি না পায়। মার্কিন সেনাদের সুরক্ষার জন্য তারা কাজ করছে। 

এবিষয়ে সেনাদের রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপও নিয়েছে। গাজা-ইসরাইল সহিংসতা চলাকালীন এরই মধ্যে ওয়াশিংটন মধ্যপ্রাচ্যে শত শত সেনা, দুটি রণতরি এবং একটি পারমাণবিক সাবমেরিন মোতায়েন করেছে। এরপরও থামানো যাচ্ছে না হামলা।

এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিঙ্কেন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনাদের কোন ক্ষয়ক্ষতি হলে এর প্রতিশোধ নেবে যুক্তরাষ্ট্র। এরপরও মাত্র এক সপ্তাহের হিসাবে বলছে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনা নিহতের সংখ্যা ৩২ জনে দাঁড়িয়েছে।

ইসরাইলিদের প্রতি প্রশাসনের সমর্থন মানছেন না স্বয়ং যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরাই। ওয়াশিংটনে ইসরাইলমুখী অস্ত্রবাহী জাহাজ আটকে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। টাকোমা বন্দরে বাঁধার মুখে টানা দুই সপ্তাহ চেষ্টার পরও জাহাজটি বন্দর ছাড়তে পারেনি।

একাত্তর/এসি
ঐতিহাসিক পারস্যই হলো এখনকার ইরান। ভৌগোলিক অবস্থান, ইতিহাস, সভ্যতা, শিক্ষা-দীক্ষা আর জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ এই দেশটি একটা সময় পরম বন্ধু থাকলেও, কালের পরিক্রমায় এখন ইসরাইলের চরম শক্র।
মধ্যপ্রাচ্যের সুপার পাওয়ার ইরান এবং মধ্যপ্রাচ্যের দুর্বৃত্ত ইসরাইলের মধ্যে খেলা কী শেষ, নাকি সবে জমে উঠলো খেলা। ইসরাইলের আকাশে ড্রোন আর মিসাইলে ‘বান’ ডেকে গোটা বিশ্বকে হতচকতি করে দেয় ইরান।
মধ্যপ্রাচ্যের কসাই হিসাবে খ্যাত ইসরাইলি নেতা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু কি ক্রমশই একঘরে হয়ে পড়ছেন? এমন প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে গোটা দুনিয়াতে।
গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর গণহত্যার প্রতিবাদে শরীরে আগুন দিয়ে আত্মাহুতি দেওয়া সেই মার্কিন সেনা অ্যারন বুশনেল অমর হয়ে থাকবেন বলে মন্তব্য করেছে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সংগঠন হামাস।
গাজা উপত্যকা জুড়ে আক্রমণ জোরদার করেছে ইসরাইল। এতে শুধু শনিবারই কমপক্ষে ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।
সাংগঠনিক অনিয়ম এবং বিশৃঙ্খলার অভিযোগে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে লাগাতার কর্মসূচির পর চট্টগ্রাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে।
আদর্শ ও সংগঠনবিরোধী বক্তব্য দেয়ায় কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খানকে শোকজ (কারণ দর্শানো) নোটিশ দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি।
মিয়ানমারের কাচিন রাজ্যে স্বর্ণ ও দামি অ্যামবার পাথরের খনিসমৃদ্ধ একটি এলাকার দখল নিয়েছে কাচিন ইন্ডিপেনডেন্স আর্মি (কেআইএ) ও তাদের মিত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলো। ছয় দিনের হামলার পর গত বৃহস্পতিবার তানাই...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত